নয়াদিল্লি: ব্যাংকের পাশাপাশি পোস্ট অফিসের সেভিংস অ্যাকাউন্টে অনেকেই টাকা জমা রাখেন। পোস্ট অফিসের সেই সব অ্যাকাউন্টের জন্য নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে যে, নিয়মটি না জানলে আপনাকে জরিমানা পর্যন্ত দিতে হতে পারে। ইতিমধ্যে এই ইস্যুতে গেজেট নোটিফিকেশন জারি করা হয়েছে।

পোস্ট অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এখন থেকে সেভিংস অ্যাউন্টের মিনিমাম ব্যালেন্স ৫০ থেকে বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করা হল। যদি ৫০০ টাকা মিনিমাম ব্যালেন্স না রাখা হয়, তাহলে পোস্ট অফিস আপনার সেভিংস অ্যাকাউন্ট থেকে ১০০ টাকা জরিমানা স্বরূপ কেটে নেবে। আর্থিক বছরের শেষ দিনে ওই টাকা কেটে নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

পোস্ট অফিস ডিরেক্টরেট এর তরফ থেকে সমস্ত পোস্ট অফিস গুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যাতে এই নতুন নিয়ম সমস্ত সেভিংস একাউন্ট হোল্ডারদের জানানো হয়। ডিরেক্টরেট-এর দাবি ৫০ টাকা মিনিমাম ব্যালেন্স হওয়ার জন্য পোস্ট অফিস প্রত্যেক বছর ২৮০০ কোটি টাকা লোকসান করছে তাই এই নতুন নিয়ম চালু করা হলো। সব সেভিংস অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের যাতে বলা হয় যে ৫০০ টাকা মিনিমাম ব্যালেন্স রাখতে, সেই ব্যাপারে নির্দেশিকা জারি করেছে ডিরেক্টরেট। আর যদি অর্থবর্ষের শেষ দিনে দেখা যায় যে কারও অ্যাকাউন্ট জিরো ব্যালেন্স আছে অর্থাৎ কোন টাকা নেই, তাহলে আপনা থেকেই ওই অ্যাকাউন্ট ক্লোজ করে দেওয়া হবে।

এবার থেকে পোস্ট অফিসে সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য অন্তত ৫০০ টাকা জমা রাখতে হবে। ওই টাকা জমা রেখে সিঙ্গল কিংবা কোন অপ্রাপ্তবয়স্কের নামে অ্যাকাউন্ট খোলার সম্ভব। অ্যাকাউন্ট খোলার পর ওই অ্যাকাউন্ট হোল্ডার চেকবুক এবং এটিএম পরিষেবা পাবেন। ব্যাংকের মতই পোস্ট অফিসের সেভিংস একাউন্টের ক্ষেত্রেও নমিনি রাখা যায়।

কেন্দ্রীয় সরকারের এই নতুন সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে পোস্ট অফিসের একাধিক ইউনিয়ন। অল ইন্ডিয়া এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন-এর দাবি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পোস্ট অফিসের একাউন্ট হোল্ডাররা গ্রামের বাসিন্দা , তাই তাদের পক্ষে দশগুণ মিনিমাম ব্যালেন্স দেওয়া অসুবিধার কারণ হতে পারে।

উল্লেখ্য পোস্ট অফিসের পিপিএফ টেক্স ডিপোজিট স্কিম, এন এস সি, সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা, সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম খুবই জনপ্রিয়। এইসব স্কিমের ক্ষেত্রে ট্যাক্স বাঁচানো সম্ভব হয়ে থাকে।