নয়াদিল্লি: মধ্যবিত্তদের নিয়ে কর ছাড়ে তেমন পরিবর্তন না থাকলেও আধার ও প্যান কার্ড নিয়ে বিশেষ কিছু ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ৷ বাজেটে বলা হয়েছে আধার কার্ড ও প্যান কার্ড ইন্টারচেঞ্জেবল অর্থাৎ আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে যে কোনও একটি নথি জমা দিলেই চলবে৷ যদি কারোর প্যান নম্বর না থাকে, তবে আধার নম্বর দিলেও সমস্যা হবে না৷

বর্তমানে আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে দুটি নম্বর দেওয়াই বাধ্যতামূলক৷ ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে রিটার্ন জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে আধার কার্ড আবশ্যিক করা হয়েছে৷ তবে সেই নিয়ম শিথিল করা হয়েছে এবারের বাজেটে৷ এই বিষয়ে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী৷

১৷ করদাতাদের সুবিধার জন্য বাজেটে প্যান ও আধার কার্ড নম্বরকে ইন্টার চেঞ্জেবল বলে উল্লেখ করেছেন নির্মলা সীতারমণ৷ যে কোনও একটি নম্বর দিয়েই আয়কর রিটার্ণ পাওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে৷

২৷ বাজেটে প্রস্তাবিত তথ্য অনুযায়ী, আধারের নম্বরের ওপর ভিত্তি করে আয়কর দফতর কোনও ব্যক্তিকে প্যান কার্ড দিতে পারে৷ সেক্ষেত্রে ইউআইডিএআই বা ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইণ্ডিয়ার সাহায্য নেবে আয়কর দফতর৷ প্রয়োজনীয় তথ্য সেখান থেকেই যোগাড় করা হবে৷

৩৷ যদি আয়করদাতা ইতিমধ্যেই আধার কার্ডের সঙ্গে প্যান নম্বর সংযুক্ত করে দেন, তাহলেই আধারের বদলে প্যান নম্বর বা প্যান নম্বরের বদলে আধার নম্বর দিতে পারবেন তিনি৷

৪৷ বড় অঙ্কের লেনদেন করার ক্ষেত্রে আবশ্যিক প্যান নম্বর৷ এবার থেকে আধার নম্বর দিলেও সেই লেনদেন করা যাবে বলে জানানো হয়েছে বাজেটে৷ সাধারণত বেশ কিছু অর্থনৈতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে প্যান কার্ড আবশ্যিক বলে জানানো হয়েছিল৷ কিন্তু সেই সমান গুরুত্ব এবার দেওয়া হয়েছে আধার কার্ডকে৷

৫৷ বর্তমানে আধার কার্ডের সঙ্গে প্যান কার্ডের লিংক করা বাধ্যতামূলক ছিল৷ আধারের সঙ্গে যুক্ত না থাকলে প্যান নম্বরটিকে অকেজো বলে ঘোষণা করা হত৷ এই ইস্যুতে এগিয়ে এসেছে অর্থমন্ত্রক৷ এই ধরণের ঘটনার ক্ষেত্রে পুরোনো লেনদেনগুলিকে অকেজো ঘোষণা করা হয়ে থাকে, তবে ব্যবস্থা নেবে অর্থমন্ত্রক৷