জেনেভা: সংক্রমণের নতুন শক্তি নিয়ে হাজির হয়েছে করোনাভাইরাস। চিন থেকে যে ভাইরাস ছড়িয়েছিল তার চেয়েও নতুন রূপে আরও শক্তিশালী এই জীবাণু। এটি চিহ্নিত হয়েছে G614 হিসেবে। আন্তর্জাতিক গবেষণা রিপোর্টে উঠে এসেছে এমনই তত্ত্ব।

বিবিসি জানাচ্ছে., চিনে হামলা শুরুর দিকে কোভিড-১৯ ভাইরাস মানুষের শরীরে যতটা সংক্রমিত হতো, রুপান্তরের পর বর্তমান জি-৬১৪ ভাইরাসটি তার চেয়েও বেশি সংক্রমিত হচ্ছে। তবে এটি আসল ভাইরাসের চেয়ে মানুষকে কতটা বেশি অসুস্থ করবে সেটা নিয়ে গবেষণা চলছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ব্রিটেনের কিছু গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে গবেষণা চালিয়েছে।মানুষ ও প্রাণীর কোষের উপরে পরীক্ষা চালিয়েছে তাঁরা। দেখা যাচ্ছে যে রুপান্তরিত জি-৬১৪ ভাইরাসটি এখন আগের ভাইরাসের চেয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ রিপোর্ট, করোনাভাইরাসে এখনও পর্যন্ত বিশ্বে অন্তত এক কোটি আট লক্ষ জন আক্রান্ত, মৃত পাঁচ লক্ষ ২০ হাজারের বেশি।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, করোনার পরিবর্তিত ভাইরাস জি-৬১৪ সংক্রমণের দিক থেকে আসল ভাইরাসের তুলনায় শক্তিশালী।

বিজ্ঞানীর বলছেন, করোনাভাইরাসের পরিবর্তিত এই ধরনটি সবচেয়ে দ্রুত বিস্তার ঘটে নাক, সাইনাস ও গলায়। খুব সহজে আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এটিকে নির্মূল করতে মানুষের শরীরের রোগ প্রতিরোধী ক্ষমতাকে আরও সক্রিয় হতে হবে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ