নয়াদিল্লি: বিশ্বজয় করেছেন রবিবার রাতে৷ প্রথম ভারতীয় ব্যাডমিন্টন তারকা হিসাবে বিডব্লুএফ ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে সোনার পদক জিতেছেন পিভি সিন্ধু৷ বিশ্বমঞ্চে এমন ইতিহাস গড়ে সোমবার গভীর রাতে দেশে ফিরেছেন পুসারলা৷ দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে সিন্ধুকে স্বাগত জানাতে অনুরাগীর ঢল ছিল৷ হাসিমুখে সমর্থকদের ভালোবাসার অত্যাচার সহ্য করেন সিন্ধু৷

পর্যাপ্ত বিশ্রামের সযোগ পাননি মঙ্গলবারও৷ সকাল থেকেই একাধিক হাই-প্রোফাইল মিটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন সিন্ধু৷ সকালেই কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজুর সঙ্গে ব্রেকফাস্ট মিটিং সারেন পিভি৷ সঙ্গে ছিলেন দুই কোচ পুলেল্লা গোপীচাঁদ ও কিম জি হিউন৷ সিন্ধুর বাবা পিভি রামানা এবং ব্যাডমিন্টন অ্যাসেসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার সভাপতি হিমন্ত বিশ্ব শর্মাও উপস্থিত ছিলেন সেখানে৷ সিন্ধুর হাতে পুরস্কারস্বরূপ ক্রীড়ামন্ত্রী ১০ লক্ষ টাকার চেকও তুলে দেন৷

আরও পড়ুন: সিন্ধু-প্রণীতের জন্য আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা ব্যাডমিন্টন অ্যাসোসিয়েশনের

পরে দুপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করেন সিন্ধু৷ প্রধানমন্ত্রীর হাতে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের সোনার পদক তুলে দেন পুসারলা৷ প্রধানমন্ত্রী পরে টুইট করে সিন্ধুকে ভারতের গর্ব বলে উল্লেখ করেন৷ টুইটারে সিন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাতের ছবি পোস্ট করে প্রধানমন্ত্রী লেখেন, ‘ভারতের গর্ব, একজন চ্যাম্পিয়ন যে দেশকে সোনার পদক ও একরাশ গৌরবও এনে দিয়েছেন৷ পিভি সিন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ভালো লাগল৷ ওকে অভিনন্দন জানিয়েছি ও ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভকামণা জানিয়েছি৷’

উল্লেখ্য, রবিবার সুইজারল্যান্ডের বাসেলে জাপানি তারকা নোজোমি ওকুহারাকে ২১-৭, ২১-৭ স্ট্রেট গেমে উড়িয়ে দিয়ে প্রথম ভারতীয় হিসাবে বিডব্লুএফ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের সোনার পদক জেতেন সিন্ধু৷ এই নিয়ে টানা তিনবার বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের খেতাবি লড়াইয়ে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি৷ গত দু’বার রানার্স হয়ে রুপোর পদকেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল হায়দরাবাদী ব্যাডমিন্টন কুইনকে৷ এবার বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ অভিযান শুরুর আগে সমর্থকদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পদকের রং বদলের৷ শেষমেশ কথা রাখেন সিন্ধু৷

আরও পড়ুন: বিশ্বচ্যাম্পিয়নের পরের দিন আবেগঘন বার্তা সিন্ধুর

২০১৭ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে রূপকথার লড়াই হয়েছিল সিন্ধু ও ওকুহারার মধ্যে৷ সেবার প্রায় ২ ঘণ্টার ম্যারাথন লড়াই শেষে ওকুহারার কাছে সিন্ধু পরাজিত হয়েছিলেন ১৯-২১, ২২-২০, ২০-২২ গেমে৷ সেদিক থেকে এবার ওকুহারাকে ধরাশায়ী করে মধুর প্রতিশোধ নেন পিভি৷ মাঝে ২০১৮ সালের ফাইনালে ক্যারোলিনা মারিনের কাছে ১৯-২১, ১০-২১ গেমে হেরেছিলেন পুসারলা৷

এই নিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে মোট পাঁচটি পদক জিতলেন সিন্ধু৷ ২০১৩ ও ২০১৪ সালে পর পর দু’বার বিডব্লুএফ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের মহিলা সিঙ্গলসে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন তিনি৷ ২০১৭ ও ২০১৮ সালে পর পর দু’বার রুপোর পদক গলায় ঝোলান ভারতীয় তারকা৷ এবার বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের সোনার পদকের আগে থামেননি সিন্ধু৷