স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: যাত্রীদের চাপ কমাতে কয়েকদিনের মধ্যেই নতুন এসি রেক নামাচ্ছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, চেন্নাইয়ের ফ্যাক্টরি থেকে শহরে আসার পর যে রেকটিকে ফের ওই ফ্যাক্টরিতে ফেরত পাঠানো হয়েছিল যান্ত্রিক ত্রুটি দূর করার জন্য, তাকেই আগামী কিছুদিনের মধ্যে যাত্রী পরিষেবায় নামানো হচ্ছে।

চেন্নাইয়ের ফ্যাক্টরি থেকে মোট ছ’টি নতুন রেক শহরে আনা হয়েছিল। তার মধ্যে এখনও পর্যন্ত পরিষেবায় নামানো হয়েছে তিনটি রেককে। বাকি রেকগুলিকে নামানো হচ্ছে না কেন? মেট্রো সূত্রের খবর, নতুন করে আসা তিনটি মধ্যে একটি ছাড়া বাকি দু’টি এখনও যাত্রী পরিষেবা দেওয়ার জন্য তৈরি নয়। তবে একটি রেকের শেষ মুহূর্তের কিছু রক্ষণাবেক্ষণের কাজ চালানো হচ্ছে। সেটিকে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই পরিষেবায় ব্যবহার করার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে আর একটি রেককে পরিষেবায় নামাতে আরও কিছু সময় লাগবে। চিন থেকে একটি রেক আনা হয়েছিল। সেই রেকটিও এখনও পর্যন্ত পরিষেবায় নামার জন্য তৈরি হয়নি। রেকটির ট্রায়াল রান চলছে। উল্লেখ্য, এখন কলকাতার পাতালপথে ১৬টি এসি রেক চলাচল করে।

কলকাতা মেট্রোয় যাত্রীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। গত এপ্রিল থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত সাড়ে সাত মাসে মেট্রো রেল মোট ১৩৫৩.৭৮ লক্ষ যাত্রী বহন করেছে। গত আর্থিক বছরের এই মাসগুলিতে মোট ১৩৪০.০২ লক্ষ যাত্রী বহন করেছিল তারা। তার ওপর টালা ব্রিজে বাস চলাচল বন্ধ হওয়ায় তার চাপও মেট্রোয় এসে পড়ছে। যাত্রীদের ভিড় সামলাতে চলতি বছরেই এসি রেকের সংখ্যা বাড়ানোর পরিকল্পনা নিল মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন মেট্রো রেলে আপ-ডাউন মিলে ২৮৪টি ট্রেন চালানো হত। পুজোর আগে কাজের দিনগুলিতে আরো ৪টি করে ট্রেন বাড়ানো হয়েছে।বর্তমানে কাজের দিনে পাতালপথে আপ-ডাউন মিলিয়ে ২৮৮টি করে ট্রেন চালানো হয়ে থাকে। যাত্রীদের দাবি, কাজের দিনে ফের ৩০০টি ট্রেন চালানো হোক।

মেট্রো রেলের কর্তারা অবশ্য এখনই ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধির সম্ভাবনা নেই বলেই ইঙ্গিত দিয়েছেন। তাঁদের বক্তব্য, নতুন তিনটি রেক নেমে গেলেই পুরনো নন-এসি তিনটি রেককে পরিষেবা থেকে তুলে নেওয়া হবে। কাজেই নতুন রেক নামলেও মোট রেকের সংখ্যা বাড়বে না। সেই কারণেই ট্রেনের সংখ্যাও বাড়ানো সম্ভব নয়। তবে আগামী বছরে নতুন আরও রেক নামবে।