নয়াদিল্লি: দিল্লি অ্যান্ড ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বিরাট কোহলির ভূয়ষী প্রশংসা করলেন কপিল দেব৷ ডিডিসিএ’র তরফে এই অনুষ্ঠানেই সরকারিভাবে ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামের নাম বদলে রাখা হয় অরুণ জেটলি স্টেডিয়াম৷ শুধু তাই নয়, স্টেডিয়ামের একটি স্ট্যান্ডের নামকরণ করা হয় ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির নামে৷

আরও পড়ুন: পদ্ম পুরস্কারের জন্য মনোনীত হলেন মেরি ও সিন্ধু

ভারতের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল বিরাটের প্রশংসায় বলেন যে, তিনি কখনও ভাবতেই পারেননি সচিনের কাছাকাছি কেউ পৌঁছতে পারে বলে৷ কপিলের কথায়, ‘কোহলিকে এখনও অনেক দূর যেতে হবে৷ কেরিয়ারের মাঝপথে ওর সম্পর্কে এধরণের মন্তব্য করা ঠিক নয়৷ তবে ও আমাদের যা কিছু দিয়েছে, তার কোনও তুলনা হয় না৷ কখনও ভাবিনি যে, কেউ সচিনের কাছাকাছিও পৌঁছতে পারে৷ সচিনকে আমাদের সবার ঊর্দ্ধে মনে হতো৷ বিরাট নিজের খেলাকে অন্য পর্যাতে তুলে নিয়ে গিয়েছে৷’

আরও পড়ুন: BREAKING: বাদ পড়লেন রাহুল, টেস্ট দলে নতুন মুখ শুভমন

তার আগে ডিডিসিএ সভাপতি রজত শর্মা বিরাট কোহলির নামে স্ট্যান্ডের নামকরণ প্রসঙ্গে বলেন, ‘যখন আমি সিদ্ধান্ত নিই যে, স্টেডিয়ামের একটি স্ট্যান্ড বিরাটের নামে করা হবে, তখন তা প্রথম জানাই অরুণ জেটলি জি’কে৷ উনি আমাকে বলেন, এটা খুব ভালো সিদ্ধান্ত৷ কারণ, ক্রিকেটবিশ্বে বিরাট কোহলির থেকে ভালো ক্রিকেটার আর নেই৷’

আরও পড়ুন: সেমিফাইনাল না খেলেই এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত

নিজের নামাঙ্কিত স্ট্যান্ড উন্মোচনের পর রীতিমতো আপ্লুত দেখায় কোহলিকেও৷ তিনি বলেন, ‘আজ বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় সবাইকে একটা গল্প বলছিলাম৷ আমার মনে আছে ২০০১ সালে এই স্টেডিয়ামে একটা ম্যাচ দেখার টিকিট পেয়েছিলাম এবং ক্রিকেটারদের অটোগ্রাফ চাইছিলাম৷ সেই স্টেডিয়ামেই আজ আমার নামে একটা স্ট্যান্ড রয়েছে৷ এটা আমার কাছে ভীষণ সম্মানের৷’