কলকাতা: আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী। নেতাজির জন্মদিনে আজ দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্যোগে পালিত হচ্ছে পরাক্রম দিবস। নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানাতে আজই কলকাতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে কেন্দ্রের উদ্যোগে আয়োজতি অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন মোদী। অন্যদিকে, এদিনই নেতাজির সহযোদ্ধা হিসেবে কাজ করা আবিদ হাসানাকে মরণোত্তর সম্মান জানাবে নেতাজি রিসার্চ ব্যুরো।

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আজ কলকাতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে দু’টি গ্যালারির উদ্বোধন করবেন তিনি। ভিক্টোরিয়ার এই অনুষ্ঠানে কেন্দ্রের তরফে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

এদিন দমদম বিমানবন্দরে নেমে কপ্টারে চেপে প্রধানমন্ত্রী যাবেন রেস কোর্সে। সেখান থেকে ন্যাশনাল লাইব্রেরির অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। খানিকক্ষণ সেখানে কাটিয়ে মোদী পৌঁছে যাবেন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে।

এদিন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে দু’টি পৃথক গ্যালারির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। একটি গ্যালারি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর নামে তৈরি হবে। নেতাজির বিভিন্ন সময়ের নানা কীর্তির কিছু নিদর্শন থাকবে সেই গ্যালারিতে। একইসঙ্গে অন্য গ্যালারিতে অন্য বিপ্লবীদের নিয়ে নানা তথ্য রাখা হবে।

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে শ্রদ্ধা জানিয়ে আজ ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে ‘নির্ভীক সুভাষ’ নামে গ্যালারির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অন্যদিকে, অন্য বিপ্লবীদের নিয়ে আরও একটি গ্যালারির নাম রাখা হবে ‘বিপ্লবী ভারত’। আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই দুটি গ্যালারির উদ্বোধনের পর আগামিকাল থেকেই গ্যালারি দুটি সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

নেতাজির সঙ্গে কাজ করেছিলেন আবিদ হাসান। সুভাষচন্দ্র বসুর অন্যতম প্রধান সঙ্গীদের একজন ছিলেন আবিদ হাসান। নেতাজির ১২৫তম জন্মজয়ন্তীতে আবিদ হাসনাকে মরণোত্তর সম্মান জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে নেতাজি রিসার্চ ব্যুরো।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।