মালদহ: কালিয়াচক থানার সুজাপুর। রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক ইউবিআইয়ের যে শাখাতে বছর খানেক আগে দিন দুপুরে ৩৫ লক্ষ টাকা লুট হয়েছিল। সেই শাখার এটিএম ভাঙ্গার চেষ্টা করে তিনজন স্থানীয় দুষ্কৃতী। ভোর হয়ে যাওয়ায় স্থানীয় জনতা দুজনকে ধরে ফেলে। একজন পলাতক, অন্যজনকে গণপিটুনির পর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়৷

ধৃতদের বাড়ি কালিয়াচক থানার চাষপাড়া গ্রামে। ধৃতদের মধ্যে একজন স্থানীয় কংগ্রেস নেতার ভাইপো বলে জানা গিয়েছে। শুক্রবার ভোর রাতে এটিএম ভেঙে লুঠের চেষ্টা করে তিন ব্যক্তি বলে অভিযোগ। সেই সময় স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে দুই জনকে ধরে নেয়। চলে উত্তমমধ্যম।

এরপর তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। গত কয়েক বছর আগেই ওই একই জায়গা থেকে ৩৫লক্ষ টাকা খোয়া যায়। এরপরেও নিরাপত্তা বাড়েনি এটিএমের। ইতিমধ্যে এই ঘটনায় ধরা পরে স্থানীয় কংগ্রেসের নেতা সুকুরুলা আলীর ভাইপো ইমরান আলী।

ফলে বড়সড় মাথা এটিএম লুঠের পেছনে রয়েছে বলে অনুমান পুলিশের। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও এই বিষয় নিয়ে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ বা কংগ্রেস নেতাদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।