জাকার্তা: ইদানিং সময়টা মোটেই ভালো যাচ্ছে না ভারতের দুই প্রথম সারির মহিলা শাটলার সাইনা নেহওয়াল ও পিভি সিন্ধুর জন্য। শিয়রে কড়া নাড়ছে অলিম্পিক। এমন সময় একের পর এক খেতাব অধরাই রয়ে যাচ্ছে অলিম্পিকের দুই পদকজয়ীর। নতুন বছরে মালয়েশিয়া ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছিলেন সাইনা-সিন্ধু। পরবর্তী ইন্দোনেশিয়া মাস্টার্স আরও হতাশার হয়ে রইল লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী সাইনা নেহওয়ালের জন্য।

জাপানের সায়াকা তাকাহাশির কাছে হেরে ইন্দোনেশিয়া মাস্টার্সের প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিলেন সাইনা। প্রথম গেমে এগিয়ে গিয়েও পরের দু’টি গেমে জাপানি প্রতিদ্বন্দ্বীর কাছে ৫০ মিনিটেই হেরে বসলেন হায়দরাবাদি শাটলার। তবে সাইনার বিদায়ের দিনে পিছিয়ে পড়েও টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখলেন আরেক হায়দরাবাদি পুসারলা ভেঙ্কট সিন্ধু। বিশ্বের ১১ নম্বর সাইনার বিপক্ষে এদিন ম্যাচের ফল ২১-১৯, ১৩-২১, ৫-২১। প্রথম গেমে নার্ভ ধরে রেখে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করলেও পরের গেমদু’টিতে তাকাহাশির সামনে কার্যত অসহায় আত্মসমর্পণ করেন লন্ডন টুর্নামেন্টের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন।

আরও পড়ুন: দায়িত্ববোধ পরিণত করে মানুষকে, কোহলির ‘স্পিরিট অফ ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ড’ তারই প্রমাণ

মালয়েশিয়ায় শেষ আটের লড়াই থেকে ছিটকে যাওয়া সিন্ধু যদিও উন্নীত হলেন চলতি টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় রাউন্ডে। যদিও জাপানের আয়া ওহোরির বিরুদ্ধে প্রথম গেম হেরে পিছিয়ে পড়েছিলেন রিও অলিম্পিকের রুপোজয়ী। যদিও দুরন্ত কামব্যাক করে দ্বিতীয় এবং নির্ণায়ক গেম নিজের নামে করে নেন তিনি। সিন্ধুর পক্ষে ম্যাচের ফল ১৪-২১, ২১-১৫, ২১-১১। ভারতের জন্য খারাপ খবর পুরুষ সিঙ্গলসেও। একইদিনে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিলেন কিদাম্বি শ্রীকান্ত ও সৌরভ বর্মা।

আরও পড়ুন: জন্মদিনে বিশেষ সম্মান, চুনী গোস্বামীর নামে ডাকটিকিটের উদ্বোধন

স্থানীয় শাটলার হিরেন রুস্তাভিতোর কাছে তিন সেটের লড়াইয়ে হারলেন শ্রীকান্ত। প্রথম সেট জেতা শ্রীকান্তের বিপক্ষে ম্যাচের ফল ২১-১৮, ১২-২১, ১৪-২১। অন্য ম্যাচেও প্রথম সেট জিতলেও ম্যাচ হারতে হল সৌরভ বর্মাকে। চিনা তাইপের প্রতিদ্বন্দ্বী লু গুয়াংজুর কাছে ২১-১৭, ১৫-২১, ১০-২১ ব্যবধানে হারলেন তিনি।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ