নয়াদিল্লি: কাউন্টার খোলার দু ঘন্টার মধ্যে প্রায় দেড় লক্ষ ট্রেনের টিকিট বিক্রি হল। এগুলি হল রেলের ঘোষণা মত পয়লা জুন থেকে যে ১০০ জোড়া প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে তার টিকিট। বৃহস্পতি বার কাউন্টার খোলার পর এমন অবস্থার কথা জানা গিয়েছে।

বুধবার রেলের তরফ থেকে ১০০ জোড়া ট্রেনের তালিকা দিয়েছিল যেগুলি ১ জুন থেকে চলাচল শুরু করবে। এই ট্রেন গুলির মধ্যে রয়েছে জনপ্রিয় বেশ কয়েকটি ট্রেনও যেমন- দুরন্ত সম্পর্কক্রান্তি জনশতাব্দি এবং পূর্বা এক্সপ্রেস।

করোনা অতি মহামারীর কারণে দীর্ঘদিন ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার পর এগুলি হল রেল চলাচল শুরু হওয়ার পর দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রেন। রেলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, বেলা বারোটার সময় সিস্টেমে ৭৩টি ট্রেন বুকিং এর জন্য ছিল।১,৪৯,০২৫টি টিকিট বুকিং করেছে ২৯০৫১০ জন যাত্রী।

এই ট্রেন গুলিতে এসি এবং ননএসি উভয় শ্রেণি রয়েছে এবং পুরোপুরি সংরক্ষিত কামরা। রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এইগুলি স্পেশাল ট্রেন চলবে একেবারে রেগুলার ট্রেনের মত। এই গুলি কলকাতা মুম্বইয়ের মত প্রধান প্রধান রাজ্যের রাজধানী এবং টায়ার টু সিটিকে যুক্ত করে চলবে।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এখন থেকে এই ধরনের স্পেশাল ট্রেনে থাকবে দু’ধরনের ক্যাটেগরি যাতে সব রকম যাত্রীদের জায়গা দেওয়া যায়।পয়লা জুন থেকে যেসব ট্রেন গুলি চলাচল শুরু করবে তাদের মধ্যে রয়েছে ১৭টি জনশতাব্দি এবং পাঁচটি দুরন্ত ট্রেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।