মুম্বই: নির্বাচনের পরে মহারাষ্ট্র সরকার গঠন নিয়ে চূড়ান্ত টালমাটাল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। সময় পেড়িয়ে যাওয়ায় পরিস্থিতি এমন জায়গায় গিয়েছিল বাধ্য হয়ে জারি করতে হয়েছিল রাষ্ট্রপতি শাসন। তারপরেও মেলেনি কোন স্থায়ী সমাধান সূত্র। তারপরে এই রাজ্যতে সরকার গঠন করা নিয়ে অনেক সমস্যা পোহাতে হয়েছিল। নতুন জোট শিবসেনা, কংগ্রেস এবং এনসিপি বারবার বৈঠকে বসলেও মেলেনি কোন রফাসূত্র।

মহারাষ্ট্রের আগামী মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি হিসেবে উঠে আসছিল বেশ কিছু নাম। যার মধ্যে ছিল শিব সেনার সাংসদ সঞ্জয় রাউত থেকে শুরু করে প্রবীণ রাজনীতিবিদ একনাথ শিন্দের নাম। কিন্তু স্থায়ীভাবে কে প্রথমবারের জন্য চেয়ারে বসবেন তা নিয়ে কোন নিশ্চয়তা পাওয়া যায় নি। অবশেষে শুক্রবার বৈঠক বসে এনসিপি, শিবসেনার শীর্ষ নেতৃত্ব। বৈঠক শেষে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার নিশ্চিত করলেন মহারাষ্ট্রের আগামী মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন সেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে।

শরদ পাওয়ার জানিয়েছেন, রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে। পরেও হবে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী পদের প্রার্থী নিয়ে কোন দলের মধ্যে বিরোধ নেই। এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে যোগ্য প্রার্থী উদ্ধব ঠাকরে, এমনটাই মনে করেন এনসিপি প্রধান। আর সকলেই এই বিষয়টি মেনে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। পরবর্তী বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে। কিন্তু আগামী সরকার যে উদ্ধব ঠাকরের অধীনে হবে তা নিয়ে কোন দ্বিমত নেই। আগামীকাল শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে এই নিয়ে বিস্তারিত ভাবে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন পাওয়ার।

যদিও উদ্ধব ঠাকরে এই নিয়ে নিজে থেকে কিছু বলেননি। জানিয়েছেন বৈঠক এখনও চলছে আর সঠিক পথেই চলছে। অর্থাৎ এখনও পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে আগামীকাল সরকারিভাবে মহারাষ্ট্রবাসী পেতে চলেছে তাঁদের নতুন মুখ্যমন্ত্রীকে। জানা গিয়েছে এই তিন দল শিব সেনা ১৬, এনসিপি ১৪ এবং কংগ্রেস ১২ এই ফর্মুলা মেনে এই রাজ্যতে সরকার গড়তে চলেছেন। এছাড়াও অন্যান্য পদে কারা বসবেন তা নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা চলছে বলে জানা গিয়েছে।