স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: চাকরির পরীক্ষা দিতে গিয়ে এভাবে যে নাজেহাল হতে হবে, তা ভাবেননি কেউই৷ জলপাইগুড়িতে বাস মালিক ও কর্মীদের বিরোধের জেরে অনির্দিষ্টকালের জন‍্য‍ বাস ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনে রীতিমত সমস্যায় পড়লেন যাত্রীরা৷ এর মধ্যে রবিবার ছিল পুলিশ কনস্টেবলের চাকরির পরীক্ষা৷

ফলে দীর্ঘ সময় বাসস্ট্যাণ্ডেই দাঁড়িয়ে থাকতে হল পরীক্ষার্থীদের৷ জলপাইগুড়ি থেকে ডুয়ার্সগামী বেসরকারি বাস ধর্মঘট আজ দ্বিতীয় দিনে পড়ল। ডুয়ার্সের দিক থেকে আসা কোনও বাসকেও শহরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি এদিন সকাল থেকে৷ এর ফলে রবিবার সকাল থেকেও চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে যাত্রীদের। বাস না পেয়ে অসংখ্য যাত্রীকে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে বাস টার্মিনাসের সামনে।

জানা গিয়েছে এক কর্মীকে অন্যায়ভাবে বাস মালিকের মারধর করার প্রতিবাদে কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন সমস্ত কর্মীরা। এই বনধের মধ্যেই কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির দাবি তোলেন তৃণমূল প্রভাবিত বাস কর্মচারী সংগঠনের সদস্যরা। কর্মীরা জানিয়ে দেন তাদের বেতন বাড়ানো না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে ডুয়ার্স রুটের সমস্ত বেসরকারি বাস চলাচল।

অভিযোগ, গত ৩১ জুলাই ডুয়ার্সগামী এক মিনিবাস চালকের সাথে মালিকপক্ষের বচসা হয়। ঘটনার পর ওই বাস চালককে ব্যাপক মারধর করেন এক বাস মালিক। এই ঘটনা নিয়ে মালিক সংগঠনের কাছে অভিযোগ জানানো হলেও তাদের পক্ষ থেকে বিষয়টি থানায় জানানো হয়নি।

এর প্রতিবাদে শনিবার সকাল থেকে সমস্ত মিনিবাস বন্ধ করে কাজে যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন জলপাইগুড়ি জেলা তৃণমূল প্রাইভেট মোটর কর্মী উইনিয়নের নেতাজি সুভাষচন্দ্র বাস টার্মিনাসের কমীরা। বাস না থাকায় চাকরির পরীক্ষার্থীদের টোটোর ওপরেই ভরসা করতে হয় এদিন।