মুম্বই: শোকের ছায়া নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর পরিবারে। মাত্র ২৬ বছর বয়সে চলে গেলেন তাঁর বোন। স্বাভাবিকভাবেই এই মৃত্যু একেবারেই অনভিপ্রেত। দীর্ঘদিন ধরেই রোগের সঙ্গে লড়ছিলেন অভিনেতার বোন শায়মা।

গত বছরই বোনের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন নওয়াজউদ্দিন। সেখানেই তিনি জানান, মাত্র ১৮ বছর বয়সে স্তন ক্যান্সার ধরা পড়েছিল তাঁর বোনের। অভিনেতা লিখেছিলেন, “ওর মনের জোর আর সাহস ওকে সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সাহায্য করে। আজ ২৫ বছরে পা দিল ও। এখনও ওর লড়াই চলছে।”

পাশাপাশি তিনি চিকিৎসকদেরও ধন্যবাদ জানান তাঁর বোনকে সাহস যোগানোর জন্য। নওয়াজউদ্দিন কে ওই চিকিৎসকদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন অস্কারজয়ী সাউন্ড ডিজাইনার রেসুল পুকুট্টি। তাঁকেও ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি নওয়াজ। কিন্তু অবশেষে সব লড়াই শেষ। ২৬ বছর বয়সেই চলে গেলেন নওয়াজের বোন।

এই মুহূর্তে বাংলাদেশি পরিচালক মোস্তফা সরওয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘নো ম্যান্স ল্যান্ড’ ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন নওয়াজুদ্দিন। বোনের মৃত্যুর সময়ও এই ছবির শুটিংয়ের জন্য আমেরিকায় ছিলেন তিনি। উত্তরপ্রদেশে নওয়াজুদ্দিনের জন্মভূমি বুধানা গ্রামে সায়মার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

নো ম্যান্স ল্যান্ড ছবিটি একটি আন্তর্জাতিক প্রজেক্ট। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবিটিতে তিনি সহ প্রযোজকের ভূমিকায়ও রয়েছেন। এর আগে এই ছবিটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছিলেন নওয়াজ। শেষবার ‘ফটোগ্রাফ’ ছবিতে দেখা গিয়েছিল অভিনেতাকে। এছাড়াও সম্প্রতি শেষ হয়েছে তাঁর অভিনীত ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস সিজন ২’।