ইসলামাবাদ: দীর্ঘ জল্পনা-কল্পনার পর শুক্রবার পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টের রায়ে পানামা দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেন নওয়াজ শরিফ৷ চিরদিনের জন্য এই পদ হারালেন নওয়াজ৷ আর এর পেছনে যাঁরা রয়েছেন তাঁরা হলেন সুপ্রিম কোর্টের ৫বিচারপতি৷ কারা এই ৫জন, দেখে নেওয়া যাক…

১) জাস্টিস আসিফ সইদ খান খোসা- আসিফ সইদ, ২০১০সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হন৷ পানামা মামলায় তিনিই প্রধান বিচারপতি ছিলেন৷ নিজের ১৮বছরের কেরিয়ারে তিনি প্রায় ৫০,০০০ মামলার শুনানি করেছেন৷

আরও পড়ুন: পানামা মামলা: বড় রাজনৈতিক বদলের পথে পাকিস্তান

২) জাস্টিস গুলজার আহমেদ- গুলজার আহমেদ তাঁর চাকরি জীবনের শুরুতে হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ছিলেন৷ ২০০২ সালে তিনি হাইকোর্টের বিটারপতি হন৷ ২০১১সালে তিনি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হন৷

৩) জাস্টিস এজাজ আফজল খান- ১৯৭৭সালে ল’কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েট হন তিনি৷ ১৯৯১ সালে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী হিসেবে কাজ শুরু করেন৷ ৯বছর তিনি হাইকোর্টের বিচারপতি ছিলেন৷ ২০১১সালে তিনি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হন৷

আরও পড়ুন: পানামা পেপারসে এবার পাক পরমাণু বিজ্ঞানীর নাম

৪) জাস্টিস এজাজ উল আহসন- এজাজ নিউইয়র্ক থেকে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট হন৷ ২০১১ সালে লাহোর হাইকোর্টের বিচারপতি এবং ২০১৬সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব নেন তিনি৷

৫) জাস্টিস শেখ আজমদ সইদ- আজমদ সইদ ১৯৮০সালে লাহোর হাইকোর্টের আইনজীবী ছিলেন৷ ২০০৪সালে তিনি হাইকোর্টে অ্যাডিশনাল জাজ ছিলেন৷ ২০১২সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হন তিনি৷

পাক সুপ্রিম কোর্টে এনএবি-কে আদেশ দিয়েছে যাতে তারা দু’সপ্তাহের মধ্যে নওয়াজ শরিফ এবং তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে৷ ইতোমধ্যেই নওয়াজ শরিফ তাঁর প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে৷ তাঁর কন্যা মারিয়মও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না৷