ইসলামাবাদ: তিথি মেনে পাকিস্তানেও সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায় হোলি উৎসব পালন করছে৷ রঙ মাখানোর এই উৎসবে সামিল হয়েছে সংখ্যাগুরু মুসলিম সম্প্রদায়৷ হোলি উৎসবের শুভ কামনা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ৷ শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি বলেন, সংখ্যালঘু সমাজের সঙ্গে কোনও ভেদাভেদ থাকবে না৷ পাকিস্তানের জাতির জনক মহম্মদ আলি জিন্নার মতাদর্শ বজায় থাকবে৷  একইসঙ্গে শরিফ বলেন, বসন্তের প্রতীক হোলি৷ রঙিন মরশুমের পরিবর্তনের মতো রঙিন হোক পাক জনজীবন৷
আরও পড়ুন: হোলি কব হ্যায়..!
রাজধানী ইসলামাবাদের লোক ভিরা উৎসব কেন্দ্রে হোলি উদযাপন করা হয়েছে৷ সেখানে উপস্থিত ছিলেন পাকিস্তান হিন্দু কাউন্সিলের কর্ণধার ড. রমেশ কুমার ভাঙ্কোয়ানি৷ রঙের উৎসব পাকিস্তান থেকে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ুক৷
প্রতিবারের মতো এবারও পাকিস্তানের বড়বড় শহরে হোলির আয়োজন করা হয়েছে৷ লাহোর ও করাচির বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পড়ুয়ারা হোলির রঙে মেতে উঠেছেন৷ বিভিন্ন পাক সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে এই খবর৷ উৎসবের অন্যতম কেন্দ্র সিন্ধ প্রদেশের রাজধানী করাচি৷ এই প্রদেশ পাক হিন্দু সম্প্রদায়ের উপস্থিতি চোখে পড়ে৷ সেখানেও চলছে হোলি৷

পাকিস্তান তৈরি হওয়ার সময়ে দেশের প্রথম গভর্নর জেনারেল মহম্মদ আলি জিন্না বলেছিলেন, এই দেশে সংখ্যালঘুরা নিরাপদে থাকবেন৷ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ও পাকিস্তান সরকারের রিপোর্ট বলেছে সংখ্যালঘুরা দেশে অসুরক্ষিত৷ তাতে বিড়ম্বনা  বেড়েছে পাকিস্তানের৷