নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করলেন ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক৷ মঙ্গলবারের এই সাক্ষাতে মোদীর কাছে সাইক্লোন ফণী বিধ্বস্ত ওডিশার ত্রাণের জন্য ৫,০০০ কোটির আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানান তিনি৷ সেই সঙ্গে ওডিশাকে স্পেশাল ক্যাটিগরির স্টেটাস দেওয়ার আবেদনও জানান পট্টনায়েক৷

গত এপ্রিল মাসের শেষের দিকে ভয়াবহ ফণীতে তছনছ হয়ে যায় ওডিশা৷ রাজ্যবাসীর পুনর্বাসন থেকে অন্যান্য সংস্কারের কাজের জন্য এই অ্যাসিস্ট্যান্ট প্যাকেজ প্রয়োজন, আর তাই এই অর্থের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আবেদন জানান তিনি৷ ২০ মিনিটের এই সাক্ষাতে ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী পাঁচ লক্ষ পাকা ঘরও তৈরির জন্যও সাহায্যের কথা বলেন৷ মূলত ফণীতে যারা ঘরছাড়া হয়েছেন রাজ্যে তাদের পুনর্বাসনের জন্যই এই ঘর তৈরির কথা জানানো হয় বলে জানা যায়৷

প্রতীকী ছবি

ফণীর আগেও ২০১৩ সালে সাইক্লোন Phailin-এ ওডিশার চরম ক্ষতি হয়েছিল৷ ৬০-এরও বেশি মানুষের প্রাণ গিয়েছিল৷ সেই স্মৃতি ফিরিয়ে এনে চলতি বছরে ফণীতে বিধ্বস্ত হয় ওডিশা৷

ওড়িশার নগরোন্নয়ন দফতরের তরফ থেকে হিসেব দিয়ে বলা হয়েছে যে, ৫২৫ কোটি টাকার সম্পত্তির ক্ষতি হয়েছে। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ২৯১ কিলোমিটার নর্দমা, ৭৫০ কোটি কিলোমিটার রাস্তা ও ২৬৭টি কালভার্ট। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে একাধিক পার্ক, খেলার মাঠ, কমিউনিটি সেন্টার, টাউন হল সহ একাধিক জায়গা। বুধবার এক সাংবাদিক বৈঠকে এই তথ্য জানিয়েছেন, ওড়িশার নগরোন্নয় মন্ত্রী জি মাথিভাথানন। ফণীর জেরে অন্তত ২০টি শহরে জল সরবরাহ ব্যহত হয়েছে। সরকারি প্রকল্প ‘আহার যোজনা’র মূল কেন্দ্র ও ২৭টি সেন্টার প্রায় বিধ্বস্ত। নিভে গিয়েছে ২১০০০ স্ট্রিট লাইট।

শুধুমাত্র ওড়িশাতেই মৃতের সংখ্যা ছুঁয়েছে ৬৪। পুরীইতেই ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। পূর্ব সতর্কতা থাকা সত্ত্বেও ওড়িশাকে একেবারে ধুলিস্যাৎ করে দেয় ঘূর্ণীঝড় ফণী। প্রচুর ঘর-বাড়ি গাছপালা, কার্যত নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। বিলাসবহুল হোটেল হয়ে ওঠে কঙ্কালসার। এমনকি এয়ারপোর্টেও ধ্বংসলীলা চালায় এই ফণী।

অবস্থা এমন শোচনীয় পর্যায়ে পৌঁছে যায় যার প্রভাব থেকে এখনও বের হতে পারেনি ওডিশা৷ সে সময় বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা অক্ষয় কুমার ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ফণী দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এক কোটি টাকা দান করেন। যদিও দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর এমন উদাহরণ অক্ষয় কুমারের আগেও রয়েছে। চেন্নাইতে বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়ে আর্থিক সাহায্য করেছিলেন অক্ষয়। ২০১৫ সালের চেন্নাইয়ের সেই ভয়ংকর বন্যাতে দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়ে ১ কোটি টাকা দান করেছিলেন। ওডিশার ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি৷ তবে ক্ষতির পরিমাণ এতোটাই যে এবার মোদীর দ্বারস্থ হলেন নবীন পট্টনায়েক৷