আর্কাইভ

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : নরেন্দ্রপুরে খাল থেকে স্থানীয় ছোটন ঘোষের মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। নিখোঁজ থাকার পর মৃতদেহ উদ্ধার। খুনের অভিযোগ পরিবারের। তদন্তে নেমেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। স্থানীয় সূত্রের খবর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার নরেন্দ্রপুর থানা এলাকার রেনিয়া প্রভাত পল্লী। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় বাসিন্দারা কালভার্টের নিচে খালের জলে এক ব্যাক্তিকে ভাসতে দেখেন। খবরটি ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় চাঞ্চল্য দেখা দেয়।

উল্লেখ্য, ছোটন ঘোষ নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বুধবার রাতে হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যায়। পরিবারের সদস্যরা বহু খোঁজাখুজি করে না পেয়ে, ওই রাতেই নরেন্দ্রপুর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে। বৃহস্পতিবার রাতে খালে একটি মৃতদেহ ভাসার খবর ছড়িয়ে পরতেই ঘটনাস্থলে আসে নিখোঁজ ছোটন ঘোষের পরিবার। তারা জলে ভাসতে থাকা মৃতদেহের পোশাক দেখে ছোটনকে শনাক্ত করে। খবর দেওয়া হয় নরেন্দ্রপুর থানায়। পুলিশ এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায় ।

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, ছোটন ঘোষকে খুন করা হয়েছে। এই খুনের পিছনে এলাকারই এক যুবক জড়িত আছে। ওই যুবক এলাকায় জমির দালাল বলে পরিচিত। কারণ ওই যুবকের সঙ্গে ছোটন বচসা জড়িয়ে পরার পর থেকেই নিখোঁজ হয়ে যায়। পরিবারের লোকজন নরেন্দ্রপুর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে। পরিবারের লোকজন খুনের অভিযোগ তোলায়, ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত ওই যুবক পলাতক।

এছাড়া এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে অন্য একজনকে স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। খুন না দুর্ঘটনা তার তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানা পুলিশ।