নয়াদিল্লি: অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে করোনার ভ্যাকসিন ‘কোভিশিল্ড’ তৈরি করছে পুণের সেরাম ইনস্টিটিউট। সব কিছু ঠিকঠাক চললে নতুন বছরের শুরুতেই এই ভ্যাকসিন বাজারে বেরনোর সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন সেরামের কর্ণধার আদর পুণেওয়ালা।

তবে ভ্যাকসিন ঠিক কবে বাজারে আসবে, সেবিষয়ে স্পষ্ট উত্তর নেই কারও কাছে। এবার সেই উত্তর খুঁজতেই সেরাম ইন্সটিটিউটে যাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভ্যাকসিন বানানোর কর্মকাণ্ড কোন পর্যায়ে রয়েছে তা নিজে গিয়ে দেখবেন মোদী।

জানা গিয়েছে, আগামী ২৮ নভেম্বর পুণের সেরাম ইন্সটিটিউটে যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণার অগ্রগতি ঠিক কোন পর্যায়ে রয়েছে, সে বিষয়ে গবেষকদের সঙ্গেই কথা বলবেন মোদী।

সেরামের কর্ণধার আদর পুণেওয়ালার দাবি, তাঁদের তৈরি ভ্যাকসিনটির প্রথম ডোজ ৯০ শতাংশ কার্যকর। ওই ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজটিও করোনাকে কাবু করতে ৬২ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। সব মিলিয়ে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও সেরামের যৌথ দাবি, তাঁদের তৈরি ‘কোভিশিল্ড’ করোনাকে কাবু করতে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকরী।

গত কয়েকমাসে ‘কোভিশিল্ড’ নিয়ে আশা বেড়েছে। খোদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীও এব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী। তবে ভ্যাকসিনটি ঠিক কবে নাগাদ বাজারে আনা হবে সে বিষয়ে এখনও স্পষ্ট কোনও উত্তর নেই কারও কাছেই। এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বয়ং যাবেন সেরামে। গবেষকদের সঙ্গেই ভ্যাকসিন তৈরির অগ্রগতি নিয়ে কথা বলবেন তিনি। একইসঙ্গে করোনা রুখতে ভ্যাকসিনটির কার্যকারিতা নিয়েও কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে, শীতের মরশুমের শুরুতেই করোনা নিয়ে নতুন করে উদ্বেগ বেড়েছে গোটা দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৪৫ হাজার মানুষ নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫২৪ জনের। শীতকালে সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের একাংশের।

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশে ৯২ লক্ষ ৬৬ হাজার ৭০৫ জন নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে করোনা অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৪ লক্ষ ৫২ হাজার ৩৪৪টি। এখনও পর্যন্ত দেশে করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৩৫ হাজার ২২৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করেনাার বলি ৫২৪ জন।

সংক্রমণের নিরিখে গোটা বিশ্বের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। দেশের একাধিক রাজ্যে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। দিল্লি, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাত, পঞ্জাব, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্যের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই দেশের ৬ রাজ্যে নাইট কার্ফু জরি করা হয়েছে। সংক্রমণ রুখতে আরও কী কী পদক্ষেপ করা যেতে পারে তা নিয়ে প্রতিনিয়ত রাজ্যগুলির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে কেন্দ্রীয় সরকার।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।