নয়াদিল্লি: মঞ্চে গিয়ে দাঁড়ালেই চারপাশ থেকে শোনা যাবে ‘মোদী… মোদী…’। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ভোটপ্রচারের এই ছবিটা আজও উজ্জ্বল। যদিও গত কয়েকদিন ধরে কালো পতাকা, ‘মোদী হটাও’ স্লোগান সেই ছবিকে ছাপিয়ে গিয়েছে। তবে সাম্প্রতিক এক সার্ভে বলছে, এখনও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারেন নরেন্দ্র মোদী।

ইন্ডিয়া টুডে-র তরফে Mood of the Nation সার্ভে চালানো হয়েছিল। আর তাতে দেখা গিয়েছে, সবথেকে বেশি অংশের মানুষ বিশ্বাস করেন যে নরেন্দ্র মোদীই দেশের সেরা প্রধানমন্ত্রী। ইন্দিরা গান্ধী রয়েছেন তার ঠিক পরই। তিন নম্বরে অটল বিহারী বাজপেয়ী আর চার নম্বরে জওহরলাল নেহরু।

সার্ভে বলছে, ৩৪ শতাংশ মানুষ মনে করেন নরেন্দ্র মোদীই সেরা প্রধানমন্ত্রী। ১৬ শতাংশের রায় ইন্দিরা গান্ধীর পক্ষে। আর ১৩ শতাংশ পছন্দ করছে বাজপেয়ীকে। তবে ৩৪ শতাংশের পছন্দ নরেন্দ্র মোদী হলেও, জনপ্রিয়তা নাকি একটু কমেছে তাঁর। ২০১৯-এর অগস্টে সার্ভে করা হয়েছিল। সেবারের থেকে তিন শতাংশ কমেছে জনপ্রিয়তা।

২০১৯-এর জানুয়ারিতে লোকসভা নির্বাচনের আগে মাত্র ১৯ শতাংশ মানুষের পছন্দের তালিকায় ছিলেন নরেন্দ্র মোদী। আর আট মাসে জনপ্রিয়তা বেড়ে হয় ৩৭ শতাংশ। আর এবছরের জানুয়ারিতে সেই হার কমে হয়েছে ৩৪।

কিন্তু কেন কমল জনপ্রিয়তা? বিশেষজ্ঞদের মতে, এনআরসি, সিএএ অবশ্যই এর পিছনে একতা কারণ। এছাড়া বেকারত্ব এবং অর্থনৈতিক অবস্থাও মোদীর জনপ্রিয়তা কমিয়েছে।

এর আগে ২০১৭-তে বিশ্বের রাজনৈতিক নেতাদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় সবথেকে বেশি ফলোয়ার নিয়ে তালিকায় প্রথমে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা প্রেসিডেন্ট পদ থেকে অবসর নেওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ফলোয়ার সবথেকে বেশি ছিল মোদীর।