নয়াদিল্লি: এই নিয়ে ষষ্ঠবার স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লা থেকে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এটাই প্রথম ভাষণ। তাই দেশবাসীর আশা ছিল অনেক। একের পর এক ঘোষণা দিয়ে দেশবাসীর আশা পূরণের পথে হেঁটেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিন কোন কোন গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করলেন মোদী:

জল-জীবন মিশন: নয়া উদ্যোগের কথা ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এতে থাকবে জল বাঁচানোর প্রক্রিয়া, সমুদ্রের জল কাজে লাগানোর প্রক্রিয়া। তিনি বলেন, শিশুদের ছোট থেকেই জলের গুরুত্ব বোঝানো হবে। ৭০ বছরে জলের জন্য যে কাজ হয়েছে, আগামী পাঁচ বছরে তার চার গুণ কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, বহু বছর আগে এক সাধু বলে গিয়েছিলেন, এমন দিন আসবে যখন খাবার জল দোকানে বিক্রি হবে। আজ সেটাই সত্যি হয়েছে।

পরিকাঠামো উন্নয়ন: পরিকাঠামো উন্নয়ন বা নির্মাণকাজের জন্য ১০০ লক্ষ কোটি টাকা আলাদা করা আছে বলে উল্লেখ করলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি উল্লেখ করেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের চাওয়া -পাওয়া বদলেছে। মজার ছলে তিনি বলেন, আগে মানুষ জানতে চাইত কবে পাকা রাস্তা হবে, আজ বলে চার লেনের রাস্তা নাকি ছয় লেনের? আগে রেল স্টেশন বানালেই মানুষ খুশি হয়ে যেত। এখন জিজ্ঞেস করে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস কবে আসবে? আগে মোবাইল পেলেই মানুষ খুশি হত, এখন বলে ডেটা স্পিড কত? মানুষের ভাবনা বদলাচ্ছে। বললেন প্রধানমন্ত্রী।

৫ ট্রিলিয়নের অর্থনীতি: মোদী বলেন, ৭০ বছরে ভারতের অর্থনীতি ২ ট্রিলিয়নে পৌঁছেছিল। আর গত পাঁচ বছরে ২ থেকে ৩ ট্রিলিয়ন হয়ে গিয়েছে। অর্থাৎ পাঁচ বছরেই বেড়ে ১ ট্রিলিয়ন। এবার খুব শীঘ্রই অর্থনীতি পাঁচ ট্রিলিয়নে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্লাস্টিক মুক্ত দেশ: দেশকে প্লাস্টিক মুক্ত করার উদ্যোগের কথা ঘোষণা করলেন মোদী। ২ অক্টোবর অর্থাৎ গান্ধী জন্মজয়ন্তীতে শুরু হবে সেই অভিযান। দোকানদারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘দোকানে লিখে রাখুন, দয়া করে আমাদের কাছ থেকে প্লাস্টিক প্যাকেট চাইবেন না। বাড়ি থেকে ব্যাগ নিয়ে আসুন।’ এতে দূষণ মুক্ত হওয়ার পাশাপাশি যারা ব্যাগ বানান সেইসব মানুষের উপকার হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

‘চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ: দেশের সেনাবাহিনীর জন্য নতুন পদ ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর্মি, নেভি, এয়ার ফোর্স- তিন বাহিনীর জন্য থাকবে একটি পদ ‘চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ’। ২০ বছর ধরেই এই দাবি উঠছিল। কার্গিল যুদ্ধের পর থেকেই এমন দাবি উঠেছিল। আর সেই সিদ্ধান্তের কথাই এদিন ঘোষণা করলেন মোদী