মুম্বই: আপাতত ইনফোসিসের হাল ধরতে নন এক্সিকিউটিভ ও নন ইন্ডিপেনডেন্ট চেয়ারম্যান হিসেবে সংস্থায় ফিরেছেন নন্দন নিলেকানি। তবে এই পদে নিজের কার্যকালে তিনি কোনও বেতন নেবেন না। বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জকে সে কথা জানিয়েছে ইনফোসিস।

প্রতিষ্ঠাতা নন্দন নিলেকানিই ফের ইনফোসিসের চেয়ারম্যান

নন্দন নিলেকানি ইনফোসিসের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রাক্তন চিফ এক্সিকিউটিভ। বর্তমানে তিনি এই সংস্থার ০.‌৯৩ শতাংশের অংশীদার। ২০১০ সালে সংস্থার ডিরেক্টর থাকাকালীন তিনি ৩৪ লক্ষ টাকা বেতন নিতেন বলে জানিয়েছে ইনফোসিস কর্তৃপক্ষ। বিশাল সিক্কা সিইও পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পর ২৪ অগাস্ট তাঁকে নতুন চেয়ারম্যান করে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

যদিও চিফ অপারেটিং অফিসার (‌সিওও)‌ পদে এখনও ইউবি প্রবীণ রাওই রয়েছেন। তার জন্য এ বছর ৩১ মার্চ নির্ধারিত বেতন পাবেন তিনি। তবে অন্তর্বর্তীকালীন সিইও এবং এমডি–র দায়িত্ব পালনের জন্য তাঁকে বাড়তি কোনও টাকা দেবে না ইনফোসিস।
ইতিমধ্যেই নতুন সিইও খোঁজার কাজ শুরু করে দিয়েছেন নিলেকানি। এজন্য নিয়োগকারী সংস্থা ‘‌ইগন জেন্ডার’কে দায়িত্ব দিয়েছেন। ‌যাতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বোর্ড গঠন করে সংস্থার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা শুরু করা যায়। তিনি জানিয়েছেন, ‌সংস্থার ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতেই তিনি ফিরে এসেছেন। দীর্ঘ কয়েকমাস ধরে ইনফোসিসের অন্দরে টানাপোড়েন চলছে। সংস্থার সহ প্রতিষ্ঠাতা এনআর নারায়ণ মূর্তির সঙ্গে মতবিরোধের জেরেই পদত্যাগ করেছেন বিশাল সিক্কা। শুধু তাই নয় মূর্তি সঙ্গে ঝামেলা বেঁধেছিল প্রাক্তন চেয়ারম্যান আর সেশায়ীরও। শুক্রবার এই সেশাসায়ীকে মূর্তি বিরুদ্ধে মুখ খুলতে দেখা গিয়েছে৷

সংস্থার নিজস্ব শেয়ার কেনা, নিলেকানির নন এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ সহ আরও কিছু বিষয়ে শেয়ারহোল্ডারদের মতামত নিতে পোস্টাল ব্যালট ইস্যু করছে ইনফোসিস৷ ই-ভোটিং এবং পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে এই সব বিষয়ে ভোট দেওয়া যাবে ৮সেপ্টেম্বর সকাল থেকে ৭ অক্টোবর বিকেল পর্যন্ত৷