স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রস্তুতি চরমে৷ ৮ নভেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে ২৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। নন্দন চত্বরে জোরকদমে চলছে তারই প্রস্তুতি। উৎসব চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেখানো হবে সত্যজিৎ রায় পরিচালিত ‘গুপি গাইন, বাঘা বাইন’। ছবিটির ৫০ বছর উপলক্ষ্যে থ্রিডি স্ক্রিনে দেখানো হবে। উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন, মহেশ ভাট, রাখী গুলজার, মাধবী মুখোপাধ্যায়, গৌতম ঘোষ-সহ আরও অনেকে। এবারের কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব কমিটির সভাপতি পরিচালক রাজ চক্রবর্তী বেশ আশাবাদী।

নন্দন চত্বরে এক সপ্তাহ ধরে বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হবে নানা দেশের ছবি। ইতিমধ্যে সেজে উঠেছে নন্দন-সহ শিশির মঞ্চ, রবীন্দ্র সদন। একতারা মঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে সিনেমা বিষয়ক আড্ডা।

এবার উৎসবে দেখানো হবে ৯২টি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি এবং ৫৭টি তথ্যচিত্র। থাকছে ৭৬টি ভারতীয় ছবি। বাংলাদেশর দুটি ছবিও এবার অংশ নিচ্ছে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে। ছবি দুটি হল এন রাশিদ চৌধুরী পরিচালিত ‘চন্দ্রাবতী কথা’ এবং নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু পরিচালিত ‘আলফা’।

কলকাতা শহরের ১৭টি স্ক্রিনে দেখানো হবে ছবি। ৬৭টি দেশ থেকে জমা পড়েছিল ২,৮৯২টি এন্টি। বিদেশি চলচ্চিত্র বিভাগে সেরা ছবি পাবে ৫১ লক্ষ টাকার পুরস্কার। সম্মানমূল্য হিসেবে পরিচালক পাবেন ২১ লক্ষ টাকার পুরস্কার। এবারের চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হবে বার্নার্ডো বের্তোলুচ্চির ৬টি ছবি।

পৃথিবীর সেরা ছবির পোস্টার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে বিরাট ব্যানার। সেই ব্যানার উৎসবের কয়েকদিন শোভা পাবে নন্দন চত্বরে। নন্দনের সামনে বসানো হয়েছে ইন্সটলেশন। উৎসবের সমপ্তি ১৫ নভেম্বর নজরুল মঞ্চে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ