নয়াদিল্লি: লোকসভা নির্বাচনের সময় যে নমো টিভি চর্চায় ছিল, নির্বাচনের পরে টিভি স্ক্রিন থেকে সেই নমো টিভিই উধাও৷ একপ্রকার নিঃশব্দেই বিদায় নিয়েছে সেই টিভি৷ আজ তক থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর জানাচ্ছে, অত্যন্ত রহস্যজনকভাবেই ডিটিএইচ প্ল্যাটফর্ম থেকে সরে গিয়েছে এই নমো টিভি৷

যেভাবে হঠাৎই একদিন দেখা পাওয়া গিয়েছিল এর সেভাবেই হঠাৎ এই নমো টিভির উধাও হওয়া নিয়েই চলছে গুঞ্জন৷ বিরোধীদের নজরে এই চ্যানেল আসার পর থেকেই শুরু হয়েছিল হাঙ্গামা৷ রাহুল গান্ধীসহ বেশ কয়েকজন বিরোধী নেতা তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রকের কাছে এই চ্যানেল প্রদর্শনের বিরোধিতা করেছিলেন বলেও জানা যায়৷ ডিটিএইচ অপারেটার্সের মতো টাটা স্কাই, ভিডিওকন এবং ডিশ টিভি নমো টিভিকে ফ্রি টু এয়ার করে দেয়৷ অর্থাৎ এই চ্যানেল দেখার জন্য উপভোক্তাদের কোনও টাকা দিতে হবেনা বলেই জানানো হয়৷ সমগ্র দেশে এই চ্যানেল প্রদর্শিত হত৷ এবং একেই সরকারের প্রোপাগেন্ডা মেশিন বলে অভিযোগ করে বিরোধীরা৷

বিতর্ক বাড়তে থাকলে নির্বাচন কমিশন তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের কাছে এই বিষয়ে রিপোর্ট তলব করে৷ মন্ত্রকের জবাবে বিতর্ক আরও বেড়ে যায় বলে জানা যায়৷ কারণ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই নমো টিভিকে বিজ্ঞাপন ভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম বলা হয়, যার প্রদর্শনের দায়িত্বে ছিল ডিটিএইচ অপারেটর্স৷ প্রদর্শনের ব্যয়ভার ছিল বিজেপির৷ সেই সঙ্গে এও জানানো হয়, এটি রেজিস্টার্ড চ্যানেল নয়৷ কংগ্রেসের আপত্তির পর নির্বাচন কমিশন নির্দেস জারি করে নমো টিভি থেকে সম কন্টেট তুলে নেওয়ার কথা বলে৷

আর এই নমো টিভির বন্ধ হয়ে যাওয়াকে নির্বাচনী উদ্দেশ্য সাধন সম্পূর্ণ হয়েছে বলেই মনে করছে অনেকে৷