কোহিমা: বড় সিদ্ধান্ত নিল নাগাল্যান্ড সরকার। বাণিজ্যিক আমদানি, বাণিজ্য ও কুকুরের মাংসের বিক্রি নিষিদ্ধ করা হল নাগাল্যান্ডে। শুক্রবার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নাগাল্যান্ডের মুখ্য সচিব তেমজেন টয় শুক্রবার টুইটারে জানিয়েছেন, “রাজ্য সরকার বাজারে কুকুর বিক্রি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং কুকুরের মাংস বিক্রিতেও নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। কাঁচা বা রান্না কোনও মাংসই বিক্রি করা চলবে না।

উল্লেখ্য, নাগাল্যান্ডে ইন্টারনেটে একটি ছবি মারাত্মক ভাবে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে কয়েকটি কুকুরকে মুখ বেঁধে নাগাল্যান্ডের ডিমাপুরের একটি বাজারে ব্যাগে ভরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান এনিমাল প্রোটেকশন অর্গানাইজেশনস বৃহস্পতিবার কুকুরের মাংসের ব্যবসা নিষিদ্ধ করার জন্য রাজ্য সরকারকে একটি নতুন আবেদনও জমা দেয়। এর একদিন পরেই এই বিবৃতি জানাল নাগাল্যান্ড সরকার।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া অভিনীত সিনেমা মেরি কমের পরিচালক ওমুং কুমার একটি অনলাইন প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন, সেখানে
কুকুরের মাংস নিষিদ্ধ করার দাবিতে ইমেল পাঠাতে বলা হয়। অর্থাৎ সাধারণ মানুষের মধ্যেও কুকুরের মাংস বিক্রি নিয়ে ক্ষোভ ছিলই।

উল্লেখ্য, নাগাল্যান্ডে য়েকটি সম্প্রদায়ের মধ্যে কুকুরের মাংস একটি সুস্বাদু খাবার হিসেবে জনপ্রিয়। ২০১৬ সালেও অ্যানিমাল রাইটস -এর কর্মীরা কুকুরের মাংসের বিষয়ে সরকারকে একটি আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিল।

নাগাল্যান্ডে পাইকারি দরে কুকুর বিক্রি করা হলে তার দাম পাওয়া যায় ১০০০ টাকা। নাগাল্যান্ডের রাস্তায় ২০০ টাকা কেজিতে কুকুরের মাংস বিক্রি করা হয়। উল্লেখ্য, শুধু নাগাল্যান্ড না দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আরও কয়েকটি অঞ্চলে কুকুরের মাংস খাওয়া হয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ