প্যারিস: রবিবাসরীয় ফাইনালে কেরিয়ারে রাফায়েল নাদাল-নোভাক জকোভিচের ৫৫তম দ্বৈরথ দেখার অপেক্ষায় প্রহর গুনছিলেন টেনিস অনুরাগীরা। কিন্তু ফের টুর্নামেন্ট চলাকালীন চোটের কবলে রাফায়েল নাদাল। তলপেটে চোটের কারণে সেমিফাইনালের ঠিক আগে টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন স্প্যানিশ তারকা। তাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করে প্যারিস মাস্টার্সের ফাইনালে জকোভিচের মুখোমুখি ডেনিস শাপোভালোভ।

উল্লেখ্য, গত মরশুমেও চোটের কবলে পড়ে প্যারিস টুর্নামেন্ট শুরুর আগে নাম প্রত্যাহার করে বছর শেষ করেছিলেন স্প্যানিশ টেনিস মায়েস্ত্রো। শনিবার দ্বিতীয় সেমিফাইনাল শুরুর ঠিক আগে টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন রাফা। সাংবাদিক সম্মেলনে হতাশ রাফা জানান, ‘এর আগেও এমন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছি আমি। চিকিৎসকেরা না খেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন। তাই খানিকটা বাধ্য হয়েই নাম প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হয়েছে।’

আরও পড়ুন: তিন সেকেন্ডেই দিন-রাতের টেস্টে সম্মতি দিয়েছিলেন বিরাট, জানালেন মহারাজ

জানা গিয়েছে, কানাডার বছর কুড়ির প্রতিদ্বন্দ্বী শাপোভালোভের বিরুদ্ধে কোর্টে নামার আগে শনিবার সকালে অনুশীলনে নিজেকে ঝালিয়ে নিচ্ছিলেন ১৯টি গ্র্যান্ডস্ল্যামের মালিক। সেখানেই তলপেটে সমস্যা অনুভব করেন নাদাল। স্ক্যানের রিপোর্টও পুরোপুরি স্বাভাবিক না থাকায় বড় চোট-আঘাত থেকে বাঁচতে নাম প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেন নাদাল। তবে ১০ নভেম্বর থেকে লন্ডনে শুরু হতে চলা এটিপি ফাইনালসে অংশগ্রহণ করার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী তিনি।

আরও পড়ুন: অলিম্পিকের টিকিট নিশ্চিত করল দেশের মহিলা হকি দল

অন্যদিকে দিনের প্রথম সেমিফাইনালে বুলগেরিয়ার গ্রেগর দিমিত্রভকে হারিয়ে স্ট্রেট সেটে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেন নোভাক জকোভিচ। সার্বিয়ান টেনিস তারকার পক্ষে ম্যাচের ফল ৭-৬ (৭-৫), ৬-৪। রবিবার কানাডার শাপোভালোভের বিরুদ্ধে কেরিয়ারের ৫০তম মাস্টার্স ফাইনালে খেলতে নামবেন জোকার। উলটোদিকে কেরিয়ারের প্রথম মাস্টার্স ফাইনালে পৌঁছলেন কানাডার তরুণ তুর্কি। তবে ফাইনালে জোকোভিচের মুখোমুখি হওয়ার আগে নাদালের বিরুদ্ধে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয় সহজে মেনে নিতে পারছেন না শাপোভালোভ। তবে তাঁর কথায়, ‘এটা আমার কাছে দারুণ একটা সুযোগ।’