কলকাতাঃ  দুর্গাপুজো নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। এই বছর রাস্তা আটকে কোনও দুর্গাপুজো করা যাবে না। বিশেষ করে কোনও ছোট-বড় মন্ডপ করা যাবে না বলেই নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন। ইতিমধ্যে এই নির্দেশিকা কলকাতা সহ জেলার সমস্ত থানাতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশিকাতে বলা হয়েছে, মানুষের সমস্যা হতে পারে এমন কোনও কাজ করা যাবে না।

বিশেষ করে ক্লাবগুলি যাতে রাস্তা আটকে কোনও পুজো মন্ডপ তৈরি করতে না পারে সেজন্যে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। নবান্নের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বহু দুর্গাপুজো কমিটি। তাঁদের পালটা বক্তব্য, দীর্ঘ কয়েকবছর ধরে আমরা এভাবেই রাস্তার উপর পুজো করেছি। কিন্তু এখন যদি পুজো করার অনুমতি পুলিশ না দেয় তাহলে দীর্ঘদিনের পুজো বন্ধ হয়ে যাবে বলেই দাবি পুজো কমিটিগুলির।

নবান্ন সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তা আটকে বহু পুজো করা হয়। যা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা ক্ষোভ তৈরি হয়। ঠাকুর দেখতে গিয়ে তীব্র যানজটের মধ্যে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। এমনকি ট্র্যাফিক সামলাতেও পুজোর সময় হিমশিম খেতে হয় কলকাতা পুলিশকে। কারণ অল্প জায়গায় পুজো হওয়ার কারণে বহু রাস্তা বন্ধ করে দিতে হয় পুলিশকে। ফলে সমস্যা তৈরি হয়। গত বছর পুজোর সময় এই সংক্রান্ত ভুরি ভুরি অভিযোগ জমা পড়ে মুখ্যমন্ত্রীর তৈরির কন্ট্রোল রুমে। আর তা বিচার করেই রাস্তা আটকে পুজো করার ক্ষেত্রে এহেন নির্দেশিকা জারি করল নবান্ন।

শুধুমাত্র কলকাতার ক্ষেত্রেই নয়, রাজ্যের সমস্ত জায়গাতেই এই নির্দেশিকা কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে। নবান্ন মনে করছে, শুধু কলকাতাই নয়। জেলার বহু জায়গাতে এভাবে রাস্তা আটকে পুজো করা হয়। যার কারণে মানুষকে সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। এমনকি সেখানেও তীব্র যানজটের মধ্যে পড়তে হয়। আর সেজন্যেই এই নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য প্রশাসন।