সৌ: এন টিভি

ঢাকা: বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের বারাসতে৷ সেখান থেকেই ব্যবসার কারণে বাংলাদেশে এসেছিলেন গোবিন্দ ভট্টাচার্য৷ শনিবার সকালে মাগুরার রাস্তায় তাঁর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করা হয়৷ সন্দেহজনক এই মৃত্যু ঘিরে ছড়িয়েছে আলোড়ন৷ ওই ভারতীয় বাঙালি ব্যবসায়ীকে খুন করা হয়েছে ? এমনই প্রশ্ন উঠতে শুরু করল৷

গোবিন্দ ভট্টাচার্যের ডাকনাম রাজ৷ ৩৫ বছরের এই ভারতীয় নাগরিক ছিলেন মাগুরার নতুন বাজারে৷ সেখানেই একটি ছ তলা বাড়ির নিচে শনিবার তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়৷ তদন্তে নেমে পুলিশের ধারণা, ওই বাড়ির উপর থেকে কেউ তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে খুন করেছে৷ আবার দুর্ঘটনাও ঘটতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷

ভারতীয় বাঙালি ব্যবসায়ীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় এক বাংলাদেশি যুবককে আটক করা হয়েছে৷ তার নাম সরফরাজ নেওয়াজ৷ এই যুবকের সঙ্গে মিলেই পোশাক কেনা বেচার ব্যবসা ছিল মৃত গোবিন্দের৷ এদিকে সরফরাজের বক্তব্য, গোবিন্দের কাছে আট লক্ষ টাকা পাওনা ছিল৷ টাকা আদায়ের জন্য তাকে চাপ দেওয়া হয়েছিল৷

জেরায় সরফরাজ আরও জানায়, গতরাতে ঘুমিয়ে পড়েছিলাম৷ সেই সুযোগে টাকা না দিয়ে পালানোর ছক করে গোবিন্দ৷ পালাতে গিয়ে পাঁচ তলা থেকে হয়ত পড়ে গিয়েছে৷ তবে সরফরাজের বক্তব্য নিয়ে সন্দিহান মাগুরার পুলিশ৷