ওয়াশিংটন: তথ্য ফাঁস কাণ্ডে আবারও ক্ষমা চাইলেন ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকেরবার্গ৷ সোমবার মার্কিন কংগ্রেসে উপস্থিত হয়ে ঘটনার যাবতীয় দায় নিজের কাঁধে নেন মার্ক৷ বলেন, নিজেদের এবং ব্যবহারকারীদের তথ্যের অপব্যবহার আটকাতে সোশ্যাল মিডিয়ার সিকিউরিটি সিস্টেমকে আরও জোরদার করা দরকার৷ এরপরই ক্ষমা চান মার্ক৷

ফেসবুক তথ্য ফাঁস কাণ্ড প্রকাশ্যে আসার পর এই প্রথম আইনি জটিলতার মুখে পড়লেন মার্ক জুকেরবার্গ৷ ফেসবুক থেকে ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি করে তা আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে৷ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এই তথ্য কতটা সহায়ক হয়েছে ইত্যাদি নানা প্রশ্নের জবাব খুঁজতে সোমবার জুকেরবার্গকে মার্কিন কংগ্রেসে ডাকা হয়৷

সেখানে ফেসবুক কর্তা গোটা ঘটনার দায় নিজের কাঁধে তুলে নেন৷ জানান, এটা সাবিকভাবে তাঁর ভুল৷ তার জন্য তিনি ক্ষমাপ্রার্থী৷ তিনি ফেসবুক শুরু করেন এবং যা ঘটেছে সব দায় তাঁর৷ ইউএস হাউস এনার্জি এন্ড কমার্স কমিটির জারি করা বিবৃতিতে এটা জানানো হয়েছে৷

সোমবার ট্রেডমার্ক হুডি ছেড়ে কালো স্যুট পড়ে হাজির হন ক্যাপিটল হিলে৷ তাঁকে চারিদিক থেকে ঘিরে ছিল নিরাপত্তা কর্মীরা৷ সেখানে সেনেট কমার্স কমিটির মাথা সেনেটর বিল নেলসনের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার কক্ষে কথা বলেন৷ আগামিদিনে সেনেটর জন থুনের সঙ্গে দেখা করার কথা৷ এদিন সেনেটর বিল নেলসনের সঙ্গে দেখা করার আগে ও পরে সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান মার্ক জুকেরবার্গ৷ মঙ্গলবার ও বুধবারও তাঁকে ফের হাজিরা দিতে হবে৷