নয়াদিল্লি: ব্যাংক এবং মিউচুয়াল ফান্ড এক নয় ফলে । এমনই মন্তব্য করেছেন সেবি চেয়ারম্যান অজয় ত্যাগী। ফলে ব্যাংকের মতো আচরণ মিউচুয়াল ফান্ডের সম্ভব নয়।অ্যাসোসিয়েশন অফ মিউচুয়াল ফান্ড ইন ইন্ডিয়া (অ্যাম্ফি) আয়োজিত এক অনুষ্ঠান এই কথা বলেছেন।

ত্যাগীর বক্তব্য, মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে মাথায় রাখতে হবে লগ্নি এবং ঋণের ফারাকটা। মিউচুয়াল ফান্ডের ব্যাংকের মতো ক্যাপিটাল অ্যাডিকোয়েসি রেশিও রাখার দরকার নেই। তবে তিনি মনে করেন, ৫০টি বড় শহরের বাইরেও এর ঠিকমত বিস্তার প্রয়োজন।

সেবি চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, গত পাঁচ বছর ধরে মিউচুয়াল ফান্ডে ভালোই অর্থ ঢুকেছে। যা বছরে গড়ে ১.৮৯ লক্ষ কোটি টাকা। চলতি অর্থবর্ষের আগস্ট মাস পর্যন্ত ১.৯৯ লক্ষ কোটি টাকা এসেছে বলে তিনি জানান। মিউচুয়াল ফান্ড প্রকল্প গুলো যেন শহরকেন্দ্রিক। আর এসব শহরের বাইরে মিউচুয়াল ফান্ডকে জনপ্রিয় করতে চান তিনি।

এখন শেয়ারবাজারে অস্থিরতা কমেছে বলে দাবি করেন সেবি কর্তা। তার প্রমাণস্বরূপ তিনি তুলে ধরেন অস্থিরতা নির্ণয়ের সূচক যা গত মার্চে ছিল ৮৪ এখন সেটা নেমে হয়েছে ২০।

তিনি মনে করেন, পুঁজি জোগাড়ের উদ্দেশ্যে শুধুমাত্র ব্যাংকের দিকে তাকিয়ে থাকা উচিত নয়। বাজার থেকেও সেটা সম্ভব। গত এপ্রিল থেকে ১৮ আগস্ট অবধি শেয়ার ও ঋণপত্র থেকে ৫ লক্ষ কোটি টাকা উঠেছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।