বারাণসী: রাত পোহালেই রাখী পূর্ণিমা। এই সময়ে রাখী তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন রুকসানা, আফসানা, আহসিন, শাবিনারা। পেশার টানে নয়। নিছকই ভাইয়ের প্রতি ভালোবাসা থেকেই তৈরি করছেন রাখী। তাঁদের প্রিয় ভাইয়ের নাম নরেন্দ্র মোদী। যিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন- কোরবানি ভুলে কেরলবাসীকে সাহায্য মুসলিমদের

বারণসীর মুসলিম মহিলারা প্রতি বছরেই রাখী পাঠান নরেন্দ্র মোদীকে। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তখনও বারাণসীর এই মুসলিম বোনেদের থেকে পেয়েছেন রাখী। এই রেওয়াজ শুরু হয়েছিল ২০১৩ সাল থেকে। যার উদ্যোক্তা ছিল মুসলিম ওমেন ফাউন্ডেশন। যার প্রধান নাজনিন আনসারি।

আরও পড়ুন- তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার তিন নকল গোয়েন্দা

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বারাণসী কেন্দ্র থেকে লড়াই করেছিলেন মোদী। গুজরাতের আরও একটি কেন্দ্রেও তিনি প্রার্থী হয়েছিলেন। যদিও সেই কেন্দ্রের সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। এই মূহূর্তে মোদী বারাণসীর কেন্দ্রেরই সাংসদ। নিজের এলাকার সাংসদকে ভাইয়ের চোখে দেখেন মুসলিম ওমেন ফাউন্ডেশনের সদস্যরা। যাদের অধিকাংশই তিন তালাকের শিকার। অনেকের আবার নিকাহ হালালার মতো মারাত্মক অভিজ্ঞতাও রয়েছে।

তিন তালাক সহ নানাবিধ ধর্মীয় কুসংস্কারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে মোদী সরকার। পৃথক আইন আনার কথাও ভাবা হচ্ছে। যার কারণে বেজায় খুশি ওই সকল মুসলিম মহিলারা। মুসলিম ওমেন ফাউন্ডেশনের প্রধান নাজনিন আনসারি বলেছেন, “২০১৩ সাল থেকে আমরা নরেন্দ্র মোদীকে রাখী পাঠাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রি মোদী বাবার মতো আমাদের স্নেহ করেন এবং ব্র ভাইয়ের মতো আমাদের রক্ষা করে চলেছেন।”