নয়াদিল্লি: সংসদ ভবনে জয় শ্রীরাম স্লোগান এবং পালটা ধর্মীয় স্লোগান নিয়ে বিতর্ক শেষ হয়নি। এরই মাঝে সামনে এল নতুন বিতর্ক। হিন্দু ধর্মীয় জয় শ্রীরাম স্লোগান না বলায় আক্রান্ত হতে হল এক মুসলিম যুবককে।

শুক্রবার রাতের দিকে ঘটনাতি ঘটেছে জাতীয় রাজধানী দিল্লির রোহিনি এলাকায়। আক্রান্ত ওই ব্যক্তির নাম মহমদ মোমিন। ওই দিন রাত আটটা নাগাদ রোহিনী ২০ সেক্টরের কাছে তাঁকে আক্রমণের শিকার হতে হয়।

আরও পড়ুন- গ্রামোন্নয়নের স্বার্থে সরকারি স্কুলের মেঝেতেই ঘুমালেন মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে দাড়িওয়ালা মহম্মদ মোমিনকে দেখে রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে ডাকা হয়। গাড়িতে বেশ কয়েকজন লোক ছিল। কোনও অজানা গন্তব্যহয়তো জানতে চাওয়া হবে, এমনই মনে করেছিলেন মহম্মদ মোমিন।

কিন্তু বাস্তবটা ছিল ভিন্ন। গাড়িতে থাকা তিন ব্যক্তি মহম্মদ মোমিনকে জয় শ্রীরাম স্লোগান বলতে বলে। যদিও সেই প্রস্তাবে রাজি হননি তিনি। এরপরেই শুরু হয়ে যায় গালিগালাজ। তারপরে ওই গাড়িটি তাঁকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। এমনই জানিয়েছেন রোহিনীর ডেপুটি পুলিশ কমিশনার এসডি মিশ্র।

আরও পড়ুন- দুর্নীতির দায় ঘাড়ে চাপাচ্ছে শাসক, প্রতিবাদে সামিল পঞ্চায়েত কর্মীরা

আক্রান্ত মোমিন জানিয়েছেন যে গাড়ির ভিতরে বসে থাকা ব্যক্তিরা তাঁকে ধর্মীয় স্লোগান জয় শ্রীরাম বলার জন্য চাপ দিতে থাকে। তিনি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ওই গাড়ি দিয়ে ধাক্কা দিয়েই মেরে ফেলার চেষ্টা করা হয়। যদিও অতটাও খারাপ কিছু না হলেও তিনি মারাত্মক জখম হয়েছেন। স্থানীয় হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছে।

ডেপুটি পুলিশ কমিশনার এসডি মিশ্র জানিয়েছেন পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্তদের খোঁজে ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান নেওয়া হচ্ছে। খুব শীঘ্রই অভিযুক্তদের পাকরাও করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।