মুম্বই: শেষ দু’দিন ধরেই আবহাওয়া নিয়ে চিন্তায় ছিল মুম্বইবাসী। বুধবার বিকেল থেকেই সেই চিন্তা পরিণত হল আশঙ্কায়। বিকেল থেকেই সন্ধ্যে অবধি মুম্বই শহরে দাপট দেখাল ঘূর্ণিঝড়। ঘন্টায় ১০৭ কিমি বেগে শহরে তাণ্ডব চালাল হাওয়া।

ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসের গতিবেগ এবং বৃষ্টিপাতের ফলে নগর পুলিশ এবং মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে সতর্কবার্তা জারি করে জনগণের উদ্দেশ্যে অনুরোধ করেন, যেন কেউ এই দুর্যোগের মধ্যে বাইরে না বেরোন।

ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবের চিত্র এখন রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে। শেয়ার হও্যা ছবি ও ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বিভিন্ন বাড়ির শেড হাওয়ায় উড়ছে, উপড়ে পড়েছে একাধিক গাছ, এমনকি বেশ কয়েকটি গাড়িও হাওয়ার জেরে উলটে যাওয়ার খবর মিলেছে।

মুম্বইয়ের লাইফ লাইন ট্রেনও বৃষ্টির জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এমনকি বাস পরিষেবাও প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের জেরে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে বৃহন্নুম্বাই পৌর কর্পোরেশন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে মুম্বাইয়ে জল সরবরাহকারী দুটি হ্রদের মধ্যে একটি হ্রদের জল উপচে পড়েছে।

পরিস্থিতির গুরুত্ব বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে কথা বলে সব রকম সাহায্যের প্রস্তাবও দিয়েছেন বলে জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

বুধবার সন্ধ্যায় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ ছিল ১০৭ কিমি/ঘন্টা। পাশাপাশি আবহাওয়া অফিস আরও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জানিয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা