মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের তদন্ত নিয়ে ক্রমশ জলঘোলা চলছে। আর একের পর এক তথ্য উঠে আসছে মুম্বাই পুলিশের গাফিলতি। এবার আরও এক তথ্য ও সামনে এলো। জানা যাচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর প্রায় তিন সপ্তাহ পরে তার মোবাইল ফোন ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। কেন এত দেরিতে মোবাইল ফোনটি পরীক্ষা করার জন্য পাঠানো হল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

টাইমস নাও এর প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, দেরি করার ফরেনসিক টিম আর সেই ফোনটি পরীক্ষা করার জন্য গ্রহণ করেনি প্রথমে। যদিও পরে তারা ফোনটি পরীক্ষা করে বলে জানা যাচ্ছে। ১৪ জুন মৃত্যু হয় সুশান্ত সিং রাজপুত এর। তার ঠিক ২৪ দিন পরে ফরেন্সিক টিমের হাতে অভিনেতার ফোনটি তুলে দেওয়া হয়। নিয়ম অনুযায়ী ফরেনসিক টিমের যে কোনও ইলেকট্রনিক ডিভাইস মিরর ইমেজ এর জন্য শীঘ্রই ফরেনসিক টিমের হাতে তুলে দেওয়া দরকার। আর তাই প্রশ্ন উঠছে মুম্বাই পুলিশের ভূমিকা নিয়ে।

অন্যদিকে বিহার পুলিশের কাছেও সুশান্তের পরিবারের পক্ষ থেকে তার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। বিহার পুলিশের কাছে রেজিস্টার হওয়া এফআইআরটি কেন্দ্র সিবিআই এর হাতে তুলে দিয়েছে। মুম্বই পুলিশের কাছে রেজিস্টার হওয়া মামলাটিও সিবিআই এর হাতে তুলে দেওয়ার জন্য সরব হয়েছে সুশান্তের পরিবারসহ অনুরাগীরা।

বৃহস্পতিবার সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি সিবিআই তদন্ত চেয়ে একটি টুইট করেন। তিনি লেখেন, “সত্যিটা জানার এবং সুবিচার পাওয়ার সময় হয়েছে। দয়া করে আমাদের পরিবার এবং সারা বিশ্বকে সাহায্য করুন সত্যিটা জানতে। না হলে আমরা কখনই শান্তিতে বেঁচে থাকতে পারবো না। সুশান্তের সুবিচারের জন্য আপনারা সবাই সরব হোন। #justiceforSushantSinghRajput”

এদিন আরো একটি ভিডিও পোস্ট করেন সুশান্তের দিদি। সেখানে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, “সিবিআই তদন্তের জন্য আমরা সকলে এক হয়ে লড়ছি। নিরপেক্ষ সুবিচার পাওয়া আমাদের অধিকার। সত্যিটা সামনে আসুক, এছাড়া আমরা আর কিছু চাই না।”

এরপর এই হ্যাশট্যাগ গুলি ব্যবহার করে সুশান্তের ২ প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখন্ডে এবং কৃতি সানন এবং অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতও সোশ্যাল মিডিয়ায় সিবিআই তদন্তের দাবিতে সরব হন।

একই হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে অঙ্কিতা লোখান্ডে একটি ভিডিও পোস্ট করেন তাঁর ইনস্টাগ্রামে। সেখানে অঙ্কিতা বলেন, “দেশ জানতে চায় সুশান্ত সিং রাজপুত এর সঙ্গে কী হয়েছিল। #justiceforSushantSinghRajput #CBIforSushant”

কৃতি সানন ইনস্টাগ্রম স্টোরিতে এই বিষয়ে একটি পোষ্ট করেন। কৃতি লেখেন, “আমি প্রার্থনা করছি যাতে সত্যিটা তাড়াতাড়ি সামনে আসে। সুশান্তের পরিবার, বন্ধুবান্ধব, অনুরাগী এবং সমস্ত প্রিয়জনদের সত্যিটা জানার অধিকার আছে। আমি আশা করছি এবং প্রার্থনা করছি, সিবিআই এর ঘটনার তদন্ত করুক জাতির এই মামলায় কোন রাজনৈতিক দাগ না লাগে। জাতি সত্যিটা জানা যায় এবং পরিবার সুবিচার পেতে পারে। এবার সত্যিই ওর আত্মার শান্তি পাওয়া উচিত। #justiceforSushantSinghRajput #CBIforSushant”

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও