মুম্বই:  ফ্রি ওয়াই-ফাই পেলে মানুষ তা যে ব্যবহার না করে ছেড়ে দেবে তা কল্পনাতীত। এতে অবশ্য খারাপের কিছু নেই। মোদ্দা কথা হল ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে কি করছে? সম্প্রতি মুম্বইয়ের মহারাষ্ট্রে ৫০০ ফ্রি ওয়াই-ফাই রয়েছে। এই বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এই ফ্রিতে ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করা হয়েছে সেখানে। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস টুইট করে জানিয়েছিলেন মানুষকে ডিজিটালি আরও আপডেট করার লক্ষ্যে তাদের এই নয়া উদ্যোগ। কিন্তু এই ডিজাটাল টেকনোলজি ব্যবহার করে মুম্বইয়ে এর ৩০ হাজার মানুষ পর্ণ দেখছেন। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে।

মুখ্যমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস এর বক্তব্য, জানুয়ারীতে মুম্বাইতে ট্রায়াল পিরিয়ডের সময় ২৩ হাজার ইন্টারনেট ইউজার ছিল। তাদের মধ্যে বেশীরভাগ ২ টেরাবাইট শুধু ডাউনলোড কাজে নেট সার্ফিং করত। কিন্তু এই সংখ্যা এখন অনেক বেড়ে গিয়েছে। মুম্বই ভারতের প্রথম ওয়াই-ফাই সিটি নামে পরিচিত। কিন্তু বর্তমানে এই শহরেই অর্ধেক মানুষ ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে পর্ণ দেখতেই ব্যস্ত।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে পর্ণ সাইট বন্ধ করে দিলেও ইউজাররা বিভিন্ন নামের ডোমেইন ব্যবহার করে আবার সেই পর্ণ সাইট ইউজ করতে শুরু করে দেয়। মহারাষ্ট্রের তথ্য দপ্তরের মুখ্য-সচিব ভিকে গৌতম জানিয়েছেন। ‘ এটা ইউজার আর আমাদের মধ্যে ইঁদুর বেড়ালের খেলা চলছে। আমরা যতই পর্ণ সাইট বন্ধ করার চেষ্টা করি ইউজাররা অন্যনামের ডোমেনে এই পর্ণ সাইট সার্ফিং করা শুরু করে দেয়।’ এই মুহূর্তে মুম্বাইতে ৩৮টি ওয়েব সাইট ব্যান করা হয়েছে। এই সমস্যা থেকে মুক্তির পথ খুঁজছে মহারাষ্ট্র সরকার।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।