আমেদাবাদ: দূরত্ব ৫০৮ কিলোমিটার৷ এই পথ পাড়ি দিতে লাগবে মাত্র দু ঘণ্টা৷ দুরন্ত বুলেট গতি অর্থাৎ গুজরাতের আমেদাবাদ থেকে মহারাষ্ট্রের মুম্বই পর্যন্ত ছুটে যাবে ট্রেন৷ ট্রেনের সর্বাধিক গতিবেগ ঘণ্টায় ৩২০ কিলোমিটার৷ দুনিয়ার প্রাচীনতম রেলপথের দেশ ভারত প্রবেশ করবে রেলের বুলেট যুগে৷ বৃহস্পতিবারই সেই দিন৷

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যৌথভাবে বুলেট ট্রেন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন৷ মূল অনুষ্ঠান মোদীর রাজ্য গুজরাতেই৷ সেখানে সফর করছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী৷ প্রকল্পের খরচ মোট ১,০৮,০০০ কোটি টাকা৷ সেই খরচের ৮১ শতাংশ জাপান দেবে মাত্র ০.১ শতাংশ সুদে। এই টাকা ৫০ বছরে ফেরতযোগ্য।

রেল মন্ত্রক সূত্রে খবর, ২০২২ সালের ১৫ অগস্টের দিন চলবে দেশের প্রথম বুলেট ট্রেন। ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের দিনই দেশের দ্রুততম এই ট্রেনের চাকা প্রথম গড়াবে।

ভবিষ্যতে দিল্লি ও মুম্বই, কলকাতার মধ্যে বুলেট ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা করছে রেল মন্ত্রক৷ জানা গিয়েছে মুম্বই ও আমেদাবাদের মধ্যে চলাচলকারী বুলেট ট্রেন রুটের বেশিরভাগ মাটির ১৮ মিটার উপরে থাকবে৷ সাত কিলোমিটার বুলেট পথ থাকবে সমুদ্রের নিচ দিয়ে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও