মুম্বই: কিছুদিন আগেই দেশের মধ্যে সবথেকে ধনীদের বসবাসের শহর হিসেবে উঠে এসেছিল মুম্বইয়ের নাম। এদেশে সবথেকে বেশি বিলিয়নেয়ারের বাস এই শহরে। তবে এবার বিশ্বের তাবড় সব শহরকেও পিছনে ফেলে দিল আমাদের ‘স্বপ্নের শহর’ মুম্বই। সারা বিশ্বে সম্পদের নিরিখে ২১ নম্বরে জায়গা করে নিল এই বাণিজ্যনগরী। পিছনে ফেলে দিল ওয়াশিংটন ডিসি, মস্কো কিংবা টরন্টোর মত শহরকে। ৩৫ নম্বর রয়েছে রাজধানী দিল্লির নাম। যার পিছনে রয়েছে ব্যাংকক, সিয়াটেল, জাকার্তা।

আরও পড়ুন: ট্রেনে একঘন্টায় কলকাতা থেকে দিল্লি!

ধনী জনসংখ্যার উপর ভিত্তি করে ১২৫টি শহরকে নিয়ে এই সমীক্ষা চালানো হয়। সেখান থেকে উঠে আসে Knight Frank Wealth Report 2017. মোট ৮৯টি দেশের বিভিন্ন শহরের সম্পত্তির পরিমাণ খতিয়ে দেখা হয়।

এই সমীক্ষায় আরও জানা যায়, বিশ্বের মোট মিলিয়নেয়ারের ২ শতাংশ অর্থাৎ ১৩.৬ মিলিয়ন মিলিয়নেয়ার রয়েছে ভারতে। এছাড়া রয়েছে ২০২৪ জন বিলিয়নেয়ার, গোটার বিশ্বের মোট বিলিয়নেয়ারের ৫ শতাংশ। ফিউচার ওয়েল্থ ক্যাটাগরিতে মুম্বইয়ের স্থান ১১। শিকাগো, সিওল, দুবাই, প্যারিসের মত শহরও রয়েছে পিছনে।

আরও পড়ুন: চেন্নাই-বেঙ্গালুরু নয়! মিলিয়নেয়ারের সংখ্যায় সবার আগে কলকাতার নাম

এর আগে আরও এক সমীক্ষায় জানা যায়, দেশের মধ্যে সবচেয়ে সমৃদ্ধশালী শহর বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, পুনে, চেন্নাই ও গুরগাঁওয়ের থেকেও বেশি ধনী ব্যক্তি বা মিলিয়নেয়ারের বাস কলকাতায়। তবে মুম্বই এক্ষেত্রে এক নম্বরে রয়েছে, কলকাতা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। তথ্য বলছে, তিলোত্তমায় মোট ৯৬০০ জন মিলিয়নেয়ার রয়েছেন। হায়দরাবাদে সেই সংখ্যাটা ৯ হাজার জন, বেঙ্গালুরুতে ৭৭০০ জন, পুনেয় ৪৫০০ জন, গুরগাঁওতে ৪০০০ জন ও চেন্নাইতে ৬ হাজার জন মিলিয়নেয়ার রয়েছেন। তবে বিলিয়নেয়ারের হিসেবে কলকাতা কিছুটা পিছনে। বেঙ্গালুরুতে ৮ জন বিলিয়নেয়ার রয়েছেন। হায়দরাবাদে ৬ জন, পুনেয় ৫ জন, কলকাতা ও চেন্নাইয়ে ৪ জন এবং গুরগাঁওতে ২ জন বিলিয়নেয়ার রয়েছেন। ভারতের সবচেয়ে ধনী শহর হল মুম্বই। এরাজ্যের মোট সম্পদের পরিমাণ ৮২০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। মুম্বইয়ে ৪৬ হাজার মিলিয়নেয়ার ও ২৮ জন বিলিয়নেয়ার রয়েছেন। এরপর রয়েছে দিল্লি।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।