নয়াদিল্লি: ছট পুজোর কথা মাথায় রেখে বিহারে অক্টোবর-নভেম্বরে ভোট হতে পারে বেশ কয়েকটি দফায়। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এমনটাই খবর মিলছে। তবে এখনও ভোটের চূড়ান্ত দিন ঘোষণা হয়নি। দিন ঘোষণা করার আগে আগামী মাসে বিহার পরিদর্শনে যাচ্ছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার নাজিম জাইদি ও নির্বাচন কমিশনার অচল কুমার। সেখানে বিহারের মুখ্য সচিব, নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও স্বরাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে বৈঠক করার কথা তাদের। এর পরেই চূড়ান্ত ভোটের দিন ঠিক হতে পারে।

ভোটের আগে নির্বাচন কমিশনকে ঠিক কী কী বিষয় মাথায় রাখতে হচ্ছে?

একদিকে যেমন মাথায় রাখতে হবে বিহারে ভোট হয় জাতপাত ও ধর্মের ভিত্তিতে। তেমনই নিরাপত্তা নিয়েও নতুন করে ভাবতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। মাওবাদী ও জাতি দাঙ্গা এড়িয়ে বিহারের ভোট কতটা শান্তিপূর্ণ হয় সেটাই এখন দেখার।

এই সংক্রান্ত আরও খবর

১.বিহার ভোটে ‘সম্মানজনক’ আসন চান জিতন

২.বিহার ভোটে জয়ী জেলবন্দি গ্যাংস্টার

৩.বিহার ভোটে জোট বাঁধছে জনতা পরিবার

৪.বিহারে নীতীশ কুমারের আস্থাভোট আজ

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।