কলকাতা: মার্চ মাস থেকেই নাকি তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছেন মুকুল রায়, এমনই দাবি ইংরেজি ওয়েবসাইট The Quint-এর। যদিও এই খবরের সত্যতা যাচাই করেনি Kolkata24x7। ওই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন মুকুল রায়। মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু রায়ও তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন।

আবারও সংবাদ শিরোনামে মুকুল রায়। ইংরেজি ওয়েবসাইটের বিস্ফোরক প্রতিবেদন। বিজেপি নেতা মুকুল রায় ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায় নাকি মার্চ মাস থেকেই তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছেন। যদিও রাজ্যের শাসকদলের তরফে এব্যাপারে এখনও মুকুলকে কোনও আশ্বাস দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে ওয়েবসাইটটি।

এদিকে, মুকুল রায় তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াচ্ছেন বলে এমনিতেই গত কয়েকদিন ধরে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে। যদিও সেকথা উড়িয়ে দিয়েছেন মুকুল নিজে। তবে এবার তাঁর দিল্লির বাসভবন থেকে নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহের ছবি, প্ল্যাকার্ড সরে যাওয়ায় সেই জল্পনা কয়েকগুণ বেড়েছে।

দিল্লির সাউথ অ্যাভিনিউয়ে মুকুল রায়ের বাড়ি থেকে সরে গিয়েছে বিজেপির যাবতীয় প্ল্যাকার্ড ও পোস্টার। গেটের পাশে দেওয়াল জুড়ে এত দিন ছিল নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহদের ছবি-সম্বলিত প্ল্যাকার্ড। কিন্তু এখন আর কিছু নেই।

দিল্লিতে থাকলেও বিজেপির নির্বাচন প্রস্তুতির বৈঠকে যোগ দেননি মুকুল রায়। কলকাতায় ফিরে মুকুল রায় জানান, তাঁর চোখে ইনজেকশন নিতে হবে। সেই কারণেই তড়িঘড়ি কলকাতায় ফিরে আসেনি তিনি। তবে দিল্লিতে প্রথম দিনের বৈঠকে তিনি যোগ দিয়েছিলেন বলে জানিয়েছিলেন।

মুকুলকে নিয়ে যাবতীয় জল্পনার মাঝেই এই ইংরেজি ওয়েবসাইটিতে প্রকাশিত খবর ইতিমধ্যেই হইচই ফেলে দিয়েছে। তবে কি সত্যিই পুরোন দলে ফিরতে চলেছেন মুকুল? যদিও বিজেপি ছাড়া নিয়ে সবরকম জল্পনায় জল ঢেলেছেন মুকুল নিজেই। ইংরেজি এই ওবেসাইটের প্রতিনিধিকে মুকুল রায় জানিয়েছেন তিনি বিজেপিতেই রয়েছেন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।