স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ মৃতদেহ চুরি করেছে – অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। মঙ্গলবার তিনি বলেন, বাংলায় অরাজকতা চলছে। পুরোপুরি পুলিশি রাজ। যা হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশেই হচ্ছে। এন আর এস হাসপাতালের মর্গ থেকে কলকাতা পুলিশ নানুরের বিজেপি নেতা স্বরূপ দত্তর দেহ পরিবারকে না জানিয়েই বার করে আনে। ওই দেহ সোমবার রাতেই নানুরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

মুকুলের বক্তব্য, বাংলায় কীভাবে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে তা স্বরূপ গড়াইয়ের দেহ লোপাট হওয়ার ঘটনা থেকেই বোঝা যায়। মুকুল বলেন, “এতদিন জানা ছিল, মানুষের মৃত্যু হলে পরিবারের হাতেই দেহ দিয়ে দেওয়া হয়। এখন দেখছি পুলিশ দেহ নিয়ে পালাচ্ছে।” প্রসঙ্গত, নানুরের বিজেপি কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের মৃতদেহ এন আর এস হাসপাতালের মর্গ থেকে পরিবারকে না জানিয়ে কলকাতা পুলিশ কি ভাবে নানুরে পাঠিয়ে দিতে পারলো তা নিয়ে মঙ্গলবার দিনভর যুক্তি এবং পালটা যুক্তি নির্ভর আলোচনা চলছে। কলকাতা পুলিশ বিষয়টি নিয়ে কিছু জানায়নি।

এদিকে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও একপ্রকার তাদের অজ্ঞানতার কোথায় প্রকট করেছে। এন আর এস হাসপাতালের ডেপুটি সুপার সাংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, পুলিশ কখন মৃতদেহ নিল তিনি কিছুই জানতেন না। হয়তো বা তাঁর উর্ধত্তন কর্তৃপক্ষ (হাসপাতাল সুপার) জানতেন। রাজ্য বিজেপির তরফ থেকে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে। মুকুল আরও বলেন সারা বাংলাজুড়ে পুলিশি অত্যাচার এবং গুলি চালানোর ঘটনা ঘটছে। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যর্থ। পদত্যাগ করা উচিত।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV