প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন খুনি। এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ তাঁর দাবি, মমতার উস্কানিতে পরিকল্পিতভাবে সন্দেশখালিতে বিজেপি কর্মী খুন করা হয়েছে ৷ মমতার বিরুদ্ধে এফআইআর করা হবে বলেও বিস্ফোরক মন্তব্য মুকুলের।

সেখানেই সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, এটা পরিকল্পিত খুন৷ আমাদের বিজেপি কর্মীদের টার্গেট করে মারা হয়েছে৷ এখনও নিখোঁজ আছে বেশ কয়েকজন কর্মী। শেখ শাহজাহানের নেতৃত্বে পরিকল্পিতভাবে হামলা হয়েছে৷ আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর করব। এমনকি তিনি বলেন এই মুখ্যমন্ত্রী খুনি মুখ্যমন্ত্রী। সমস্ত রিপোর্ট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও কেন্দ্র পার্টিতে লিখিতভাবে জানাবো। এইভাবে চলতে পারে না।

দাপুটে এই বিজেপি নেতার দাবি, মুখ্যমন্ত্রী বলছে সরকার ভেঙে দেওয়ার কথা৷ তাই ওনাকে বলবো একবার এসে দেখে যান সন্দেশখালির কি পরিস্থিতি। আমরা সরকার ফেলার পক্ষে নই। অবিলম্বে যেসব দুষ্কৃতী হামলা চালিয়েছে তাদেরকে গ্রেফতার করতে হবে। পুলিশ কোনও সহযোগিতা করছে না বলে গুরুতর অভিযোগ প্রাক্তন এই তৃণমূল নেতার।

সন্দেশখালির ভাঙ্গি পাড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত গোটা রাজ্য। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চলছে কার্যত মোদী-মমতার সংঘাতের লড়াই। এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সরকার ভেঙে দেওয়ার জন্য এটা বিজেপির চক্রান্ত৷ তাঁর এই মন্তব্যকে বিজেপি নেতা মুকুল রায় ভুল বলে দাবি করেছেন৷ মঙ্গলবার দুপুরে সন্দেশখালি ভাঙি পাড়া গ্রামে নিহত ও আহত বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে যান মুকুল বাবু৷ সেখানে গিয়ে পরিবারের পাশে থাকা ও সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে তিনি।