স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: পশ্চিমবঙ্গে যেখানেই বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতা মন্ত্রীদের নিয়ে সভা করতে চাইছে, সেখানেই জমি জটে জড়িয়ে পড়ছে। কাঁথিতে অমিত শাহর সভাকে ঘিরে রবিবার রাত থেকেই জমি জটে জড়িয়ে পড়েছে বিজেপি। শেষমেশ জট কাটিয়ে পুরদমে সভার আয়োজন শুরু হয়েছে। সভাস্থলে ইতিমধ্যেই হাজির হয়ে গিয়েছেন মুকুল রায় সহ একাধিক নেতৃত্ব৷ তিনি মঙ্গলবার সভার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে নেমে পড়েছেন ময়দানে৷

বিজেপির সভা ঘিরে তৈরি হওয়া বিতর্ক পিছু ছাড়েনি কাঁথিতেও। অবশেষে সব বাধা কাটিয়ে কাঁথিতে হতে চলেছে অমিত শাহর সভা। তাই সভার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে সোমবার কাঁথিতে পৌঁছেছেন মুকুল রায় সহ একাধিক নেতৃত্ব। তবে মঙ্গলবার সভাস্থলে আসার আগে বিজেপির রাজ্য সভাপতি কাঁথির এক পুরনো মামলায় কাঁথি আদালতে হাজিরা দিতে যেতে হয় দিলীপ বাবুকে।

মুকুল রায় জানান, এই মিটিং ঘিরে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সব রকমের অসহযোগিতা করা হচ্ছে। তবে সবরকম বাধার পরেও অনুমতি মিলেছে প্রশাসনের। অমিত শাহ কিভাবে কোন পথে সভায় আসবেন সেটা কিন্তু দলের পক্ষ থেকে একবারে গোপন রাখা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, অমিত শাহ দিঘা লাগোয়া ওড়িশার কোনও জায়গায় হেলিকপ্টারে থেকে নামবেন৷ সেখান থেকে গাড়িতে আসবেন এই সভাস্থলে। বিজেপির পক্ষ থেকে কাঁথি জেলার সভাপতি তপন রায় অভিযোগ করছেন, এই মিটিংয়ে অসুবিধা করার জন্য সমস্ত রকমের খাবারের দোকান সহ বিভিন্ন দোকান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে কাঁথিতে।

বিজেপির কর্মীদের আসার জন্য বাস সহ বিভিন্ন গাড়ির মালিকদের বলে দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে যাতে তারা গাড়ি না দেন। তবে সব বাধা উপেক্ষা করে বিজেপি কর্মীরা সভাস্থলে আসতে শুরু করেছে। অমিত শাহ যথাসময়ে সভায় উপস্থিত হবেন।

কিছুদিন আগে কাঁথিতে সভা করতে এসে ঝামেলার মুখে পড়ে ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে সেদিনই তাঁর বিরুদ্ধেও পালটা মামলা হয় এলাকায় অশান্তি ছড়ানোর দায়ে। সেই মামলায় আদালতে জামিনের আবেদন করেছিলেন দিলীপ বাবু। মঙ্গলবার তারই শুনানিতে হাজিরা দিতেই বেলা ১১টা নাগাদ কাঁথি আদালতে আসেন তিনি। তবে দিলীপ বাবু কাঁথি আদালতের এসিজেএম-এর এজলাসে হাজিরা দেওয়ার পর বিচারক মামলার শুনানি বেলা ২ টোয় নিধান করেছেন। এরপরেই আদালত থেকে চলে যান দিলীপ বাবু।