নিউ ইয়র্ক: উষ্ণায়ন যে ক্রমশ বিশ্বের বিপদ ডেকে আনছে, সেকথা নতুন নয়। এর আগে কলকাতার জন্য বিপদ সংকেত দিয়েছে খোদ রাষ্ট্রসংঘ। আর এবার ওয়ার্নিং মুম্বইয়ের জন্য। হাতে আর বেশিদিন নেই। বছর কয়েকের মধ্যেই ধুয়ে সাফ হয়ে যেতে পারে দেশের বাণিজ্যনগরী মুম্বইয়ের বেশ কিছুটা অংশ। ২০৫০-এর মধ্যেই বিপুল সংখ্যক জনসংখ্যায় সেই প্রভাব পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

নিউ জার্সির ক্লাইমেট সেন্ট্রালের একটি রিসার্চ পেপারে এই গবেষণা উঠে এসেছে। স্যাটেলাইটের তথ্যের উপর ভিত্তি করে ও আরও নানা পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে ”Nature Communications” নামে একটি জার্নালে এই রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ২০৫০ নাগাদ মুম্বইয়ের অনেকটা অংশ জলের তলায় চলে যাবে, যে অংশে প্রায় ১৫০ মিলিয়ন লোকের বাস।

সমুদ্র জলস্তর বেড়ে যাওয়ার জন্য পুর্ববর্তী অনুমানের চেয়েও তিনগুণ বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে, এই গবেষণায় ভবিষ্যতের জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা উপকূলীয় ক্ষয়ের ফলে জমির হ্রাসমানতার অনুমানগুলি বিবেচনা করা হয়নি।

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, গবেষকরা “উপগ্রহ মারফত পাঠানো প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে স্থলভাগের উচ্চতা গণনা করার আরও সঠিক পদ্ধতি তৈরি করেছেন। বৃহত্তর অঞ্চলের উপর সমুদ্র-স্তর বৃদ্ধির প্রভাবগুলি অনুমান করার জন্য একটি স্ট্যান্ডার্ড পদ্ধতি এবং দেখা গিয়েছে যে এভাবে বেশ সঠিকভাবেই বিভিন্ন এলাকার ভবিষ্যৎ নির্ণয় করা সহজ হয়ে যাচ্ছে।

এই গবেষণা জানাচ্ছে, একসময় মূলত বহু দ্বীপপুঞ্জের উপরেই নির্মিত হয়েছিল এই মায়ানগরী। ফলে শহরের মূলকেন্দ্রটি বেশ দুর্বল।

অভিবাসন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থার তরফে ডিনা লোনস্কো বলেন, “সামগ্রিক গবেষণার ফলে আমরা যা দেখছি, তাতে এখনই বাসিন্দাদের স্থানান্তরিত করানোর ব্যবস্থা করা উচিৎ।

অন্যদিকে, রাষ্ট্রসংঘের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিশ্বের অন্তত ৪৫টি শহর রয়েছে রিস্ক জোনে। অর্থাৎ বরফ গলার জেরে এরা সমুদ্র সংলগ্ন অঞ্চলে থাকায় জলোচ্ছ্বাসে ভেসে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর সেই ৪৫টি শহরের মধ্যে রয়েছে ভারতের চারটি- কলকাতা, মুম্বই, সুরাত ও চেন্নাই। ওই রিপোর্ট বলছে হিমালয়ের বরফ যে হারে গলছে, তার জেরেই বিপদসীমায় রয়েছে এই শহরগুলি।

এর আগে এভাবে সমুদ্রের জল বাড়তে দেখা যায়নি। রাষ্ট্রসংঘের ওই রিপোর্ট বলছে জলস্তর বৃদ্ধির জেরে এই শতাব্দীর শেষে ১৪০ কোটি মানুষের উপর এর প্রত্যক্ষ প্রভাব পড়বে। oceans and cryosphere শিরোনামে ওই রিপোর্টটি প্রকাশিত হয়েছে কিছুদিন আগেই।

রিপোর্ট বলছে, যদি সমুদ্রের জল ৫০ সেন্টিমিটার করেও বাড়ে, তাহলেই ওই ৪৫টি শহর ভেসে যাবে। আরও বলা হয়েছে, আগে ১০০ বছরে একবার সমুদ্রের জলস্তর বাড়তে দেখা যেত। বছর কয়েক পর থেকে প্রত্যেক বছর একটু একটু করে জলস্তর বাড়তে দেখা যাবে।