সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়: এসএস’কে ভাবাচ্ছেন এমএসকে। না কোনও টাং টুইস্টার নয়। মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে টি-২০ দল থেকে ছেঁটে ফেলে তাঁকে কেরিয়ার নিয়ে তাড়াতাড়ি কিছু ভাবার বিষয়ে যেন বার্তা দিচ্ছেন মান্নভ শ্রী কান্ত প্রসাদ।

বিষয় পরিষ্কার। ভবিষ্যৎ ঋষভ। তাঁকে নিয়ে ভাবনা হোক। কম স্ট্রাইক রেটের ‘বুড়ো’ ধোনিকে আর চাই না টি-২০তে। সহজ হিসেব। তবু থাকছে বহু প্রশ্ন।

আরও পড়ুন: বন্ধ হয়ে গেল বৈশাখী ব্রিজ

এমএসকে প্রসাদ এবং এমএস ধোনি। রেকর্ড বুক বলে দেয় কোনও ভাবেই প্রসাদ ধোনির পাশে দাঁড়াবার যোগ্য নন। কিন্তু কথাতেই আছে ‘জোড় যার মুলুক তার’। এই মুহূর্তে ক্ষমতা এমএসকে প্রসাদের হাতেই। স্বাভাবিকভাবেই তিনি নির্বাচক মণ্ডলীর প্রধান।

তিনি যা মনে করবেন সেটাই মেনে নিতে হবে ভারতীয় দলের অধিনায়ক থেকে শুরু করে কোচ প্রত্যেককে। কোহলি শত চাইলেও এখানে ট্যাঁ পোঁ করতে পারবেন না। আগেই তিনি ধোনিকে বর্তমান দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। এবারে এক্কেবারে উঠে পড়ে লেগে টি-২০ দল থেকে ছাঁটাই করে দিলেন ভারতের প্রথম এবং একমাত্র টি-২০ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ককে। ‘বেচারা’ ধোনি।

আরও পড়ুন: বাঁকুড়ায় কবিতা উৎসব উদ্বোধনে পদ্মশ্রী হলধর নাগ

টি-২০-তে দেশের জার্সি গায়ে ব্যাট হাতে ধোনির সাম্প্রতিক ফর্ম মোটেই জয়ধ্বনি দেওয়ার মতো জায়গাতে নেই। সেখানে আইপিএলসহ ইংল্যান্ড এবং দেশের মাটিতে ভালো খেলা ঋষভকে জায়গা করে দেওয়াটাই স্বাভাবিক ব্যপার। সেদিক থেকে নির্বাচন একদম সঠিক।

প্রশ্ন উঠছে অন্য জায়গায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে অধিনায়ক থেকে উইকেটরক্ষক সবাইকে দেখে নেওয়া যেতেই পারে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায়? সেখানে কি ধোনির অভিজ্ঞতাকে একেবারে ভুলে যাওয়াটা ঠিক হল?

আরও পড়ুন: উদ্ধার হওয়া তিন হাজারের বেশি মাদক ভস্মীভূত করল এনসিবি

প্রশ্ন থাকছে বিশ্বকাপের আগে এমন ভাবে ছেঁটে ফেলায় মাহির আত্মবিশ্বাসে আঘাত দেবে না তো? হতে পারেন তিনি ‘মিস্টার কুল’। কিন্তু দিনের শেষে তিনিও মানুষ। বিদেশের মাটিতে ধোনির পাশে ঋষভকে রেখে আরও একটু অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে দেওয়া যেত না কি?

ধোনি প্রচুর ফাটকা খেলেছেন। এটাই পাড়ার সেরা ক্রিকেট বোদ্ধারা দাবি করেন। কিন্তু ‘দিমাগ সে ধোনি’ শুধু ফাটকা খেলে হওয়া যায় ? ফাটকা খেলে তিন ধরনের আইসিসি টুর্নামেন্টেসহ টেস্টে ভারতীয় দলকে এক নম্বর করা যায় কি? বলে বলে একের পর এক ম্যাচ ফিনিশ করে আসা যায় কি?

আরও পড়ুন: শনির রাশিচক্রে কী আছে আপনার ভাগ্যে?

এখনও সমান দক্ষতায় ক্যাচ থেকে ষ্ট্যাম্প এবং দুই উইকেটের মাঝে দৌড়ের ব্যাপক গতি এবং দুরন্ত ফিটনেসকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া যায় কি? বিতর্ক থাকবে, এটা আম বাঙালির সহজাত প্রবৃত্তি।

কিন্তু এমএসকে প্রসাদ চরম মাহেন্দ্রক্ষনে দাঁড়িয়ে এক চরম ফাটকা খেলার চেষ্টা করছেন কি না তিনিই জানেন। জানে ঋষভের ব্যাট এবং আত্মবিশ্বাস। আর জানেন ব্রহ্মা, যার কাছে রয়েছে সব গোপন তথ্য।

আরও পড়ুন: ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়লেন ধোনি