লেহ: ৩১ জুলাই থেকে ১৫ অগস্ট৷ ভারতীয় টেরিটোরিয়াল আর্মির প্যারাশুট রেজিমেন্টের সঙ্গে মহেন্দ্র সিং ধোনির বন্ধন আপাতত শেষ৷ কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল লাদাখে সেনা সতীর্থদের সঙ্গে বৃহস্পতিবার ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসের বিশেষ মুহূর্ত শেয়ার করেন বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক৷ এদিনই শেষ হয় লেফেটেন্যান্ট কর্নেল ধোনির৷ শনিবারই বাড়ি ফেরার বিমান ধরেন মাহি৷ তবে এর আগে সেনা পোশাকে লেহ-তে শিশুদের ক্রিকেট খেলতে দেখা গিয়েছে টিম ইন্ডিয়ার উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানকে৷

প্রথমবার সেনা পোশাকে দেশের স্বাধীনতা দিবস পালন করেছেন ধোনি৷ পতাকা তুলে স্বাধীনতা দিবস সেলিব্রশনের আগে লাদাখের আর্মি হাসপাতালে যান তিনি৷ সেখানে ভর্তি জওয়ান ও তাঁদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন মাহি৷ তারপর সিয়াচেনে কর্তব্যরত ভারতীয় জওয়ানদের সঙ্গে দেখা করবেন বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক৷ পাশাপাশি সিয়াচেনের ওয়ার মেমোরিয়ালে গিয়ে শহিদ জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন ধোনি৷

শনিবার নয়াদিল্লির বিমান ধরার আগে লেহ বিমানবন্দরে সিকিউরিটি চেকিংয়ের সময় ক্যামেরাবন্দি হন মাহি। আর এদিন লেহ-তে বাস্কেট বলের কোর্টে সেনা পোশাকে শিশুদের সঙ্গে ধোনির ব্যাটিং করার ছবি টুইটারে পোস্ট করে মাহির আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংস৷ ক্যাপশনে “Different field. Different gamepLeh.” সেনা পোশাকে ধোনির ভিডিও ভাইরাল হয়৷

বিশ্বকাপের পর ক্রিকেট থেকে সাময়িক অবসর নিয়ে সীমান্তরক্ষী হিসেবে দেশসেবা করতে চেয়ে ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন ধোনি। তাঁর ইচ্ছেকে যথাযোগ্য সম্মান জানিয়ে প্রাক্তন অধিনায়ককে টেরিটোরিয়াল আর্মির ১০৬ টিএ প্যারা ব্যাটেলিয়নে জম্মু-কাশ্মীরে প্রশিক্ষণের বন্দোবস্ত করে ভারতীয় সেনা। উপত্যকায় দু’সপ্তাহ দেশরক্ষায় নিয়োজিত থাকার পর বাড়ি ফেরার পালা মাহির।

৩১ জুলাই টেরিটরিয়াল আর্মির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে প্রশিক্ষণে যোগদান করেছিলেন মাহি। যোগ দিয়েই সেনা পোশাকে ব্যাটে অটোগ্রাফ দিতে দেখা গিয়েছিল কর্নেল (সাম্মানিক) ধোনিকে। পাশাপাশি সেনার পোশাকে ভলিবল খেলে ইউনিটের বাকি সদস্যদের উদ্দীপ্ত করেছিলেন মাহি। এবার শিশুদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলে তাদের অনুপ্রেরণা জোগান বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক৷

নয়াদিল্লি হয়ে রাঁচিতে নিজের বাসভবনে ফিরবেন মাহি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দল থেকে সরে দাঁড়ালেও সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে খেলতে দেখা যাতে পারে ধোনিকে৷ বিরাটদের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা৷ ১৫ সেপ্টেম্বর সিরিজের প্রথম ম্যাচ৷ ভারত সফরের জন্য ইতিমধ্যেই দল ঘোষণা করেছে প্রোটিয়াবাহিনী৷