মুম্বই: প্রত্যাশিত ছিলই, মহেন্দ্র সিং ধোনির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ার যে শেষ পথে বৃহস্পতিবার বোর্ডের বার্ষিক চুক্তি থেকে বাদ পড়ার পর তা আরও পরিষ্কার হয়ে গেল৷

ধোনি যুগের অবসান! বোর্ডের বার্ষিক চুক্তি চালু হওয়ার পর থেকে এই প্রথমবার ধোনিকে ছাড়া ক্রিকেটারদের তালিকা প্রকাশ করল বিসিসিআই৷ গত মরশুমেও গ্ A ক্যাটাগরিতে ছিলেন দু’বারের বিশ্বকাপজয়ী ভারত অধিনায়ক৷ কিন্তু এ মরশুমে ধোনিকে ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্ত নিল বিসিসিআই৷ ধোনি ছাড়াও আরও তিন ক্রিকেটারের জায়গা হল না গ্রেডেশনে৷

গত বছর ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মাটিতে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের পর থেকে আর জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যায়নি ধোনিকে৷ সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছিল ভারত৷ বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দু’মাসের জন্য বিশ্রাম নিয়েছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক৷ কিন্তু তার পর ছ’ মাস কেটে গেলেও টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে দেখা যায়নি মাহিকে৷ সম্প্রতি টিম ইন্ডিয়ার কোচ রবি শাস্ত্রী জানিয়েছিলেন, শীঘ্রই ওয়ান ডে ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে চলেছেন ধোনি৷

ছ’ বছর আগে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ধোনি ছিলেন বিরাটের দলে অমূল্য সম্পদ৷ কিন্তু গত বছর বিশ্বকাপের পরই ৩৮ বছরের প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ার নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন দেখা দেয়৷ মনে করা হয়েছিল বিশ্বকাপের পরই তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে গুডবাই জানাবেন৷ কিন্তু তা না-করে চলতি বছর অক্টোবরে টি-২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলা চালিয়ে যাওয়ার কথা ঘনিষ্টমহলে জানিয়ে দেন মাহি৷ তবে বৃহস্পতিবার বোর্ডের চুক্তি থেকে বাদ পড়ার পর অক্টোবরে ধোনির টি-২০ বিশ্বকাপ খেলা নিয়েও সংশয় দেখা দিল৷

ধোনির নেতৃত্বে ভারত ২০০৭-এ টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ২০১১ ওয়ান ডে বিশ্বকাপ জেতে৷ দেশের হয়ে ৯০টি টেস্ট এবং ৩৫০টি ওয়ান ডে এবং ৯৮টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন মাহি৷ ৬টি সেঞ্চুরি-সহ টেস্টে ৪৮৭৬ রান করেছেন ধোনি৷ ওয়ান ডে ফর্ম্যাটে ভারতকে বহু ম্যাচ জেতানোর নায়কের ব্যাট থেকে এসেছে ১০টি সেঞ্চুরি ও ৭৩টি হাফ-সেঞ্চুরি সহ ১০,৭৭৩ রান৷ আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে দু’টি হাফ-সেঞ্চুরি সহ ১৬১৭ রান করেছেন মাহি৷

ধোনি ছাড়াও বোর্ডের বার্ষিক চুক্তির তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন অম্বাতি রায়ডু, খললি আহমেদ এবং দীনেশ কার্তিক৷ মোট ২৭ জন ক্রিকেটার গ্রেডেশনে জায়গা পেয়েছেন৷ সর্বোচ্চ A+ ক্যাটাগরিতে রয়েছেন মাত্র তিন ক্রিকেটার৷ এঁরা হলেন ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি, সীমিত ওভারের ফর্ম্যাটে বিরাটের ডেপুটি রোহিত শর্মা এবং টিম ইন্ডিয়ার এক নম্বর পেসার জসপ্রীত বুমরাহ৷

গ্রেডেশনে ধোনির বাদ পড়ার ছাড়াও উল্লেখযোগ্য হল লোকেশ রাহুলের প্রমোশন৷ টেস্ট দল সম্প্রতি বাদ পড়লেও B ক্যাটাগরি থেকে A ক্যাটাগরিতে উঠে এসেছেন রাহুল৷ এছাড়াও টেস্টে দারুণ ব্যাটিং করা ডানহাতি ওপেনার ময়াঙ্ক আগরওয়াল B ক্যাটাগরিতে জায়গা পেয়েছেন৷ গ্রেডেশনে জায়গা পেয়েছেন বাংলার দুই ক্রিকেটার ঋদ্ধিমান সাহা ও মহম্মদ শামি৷

ক্যাটাগরি A+: (৭ কোটি) বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা ও জসপ্রীত বুমরাহ

ক্যাটাগরি A: (৫ কোটি) রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, চেতেশ্বর পূজারা, অজিঙ্ক রাহানে, লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, মহম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা, কুলদীপ যাদব, ও ঋষভ পন্ত৷

ক্যাটাগরি B: (৩ কোটি) ঋদ্ধিমান সাহা, উমেশ যাদব, যুবেন্দ্র চাহাল, হার্দিক পান্ডিয়া ও ময়াঙ্ক আগরওয়াল৷

ক্যাটাগরি C: (১ কোটি) কেদার যাদব, নভদীপ সাইনি, দীপক চাহার, মনীশ পান্ডে, হনুমা বিহারী, শার্দুল ঠাকুর, শ্রেয়স আইয়ার এবং ওয়াশিংটন সুন্দর৷