নয়াদিল্লি: ক্রিকেট থেকে যোজন দূরে মহেন্দ্র সিং ধোনি যেন একজন আদ্যোপ্রান্ত ফ্যামিলি ম্যান। বাইশ গজ ছেড়ে সুইমিং পুলে জলকেলিতে মত্ত সেলেব বাবা ও তাঁর ছোট্ট সেলেব মেয়ে। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে ধোনি কন্যা জিভার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়েছে একাধিক ছবি। যেখানে দেখা যাচ্ছে সুইমিং পুলে বাবা-মেয়ের খুনসুটির বিশেষ মুহূর্তে তাঁদের সঙ্গ দিচ্ছেন অল-রাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।

স্যুইমিং কসটিউমে ছোট্ট জিভাকে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ‘বেবি শার্ক’ বলে উল্লেখ করেছেন ধোনি। আর বাবার সঙ্গে স্যুইমিং সেশনে উচ্ছ্বসিত ছোট্ট জিভাও। মাঠ হোক বা মাঠের বাইরে, মেয়ে জিভা সবসময়ই বাবা মহেন্দ্র সিং ধোনির বাড়তি মোটিভেশন। নানা সময় নানা কান্ড ঘটিয়ে সংবাদ শিরোনামে আসতে সিদ্ধহস্ত ধোনির বছর চারেকের মেয়ে। স্বাভাবিকভাবেই ধীরে ধীরে ভারতীয় ক্রিকেটার ও অনুরাগীদের কাছেও সমান আদরের হয়ে উঠেছেন মাহির ‘লিটল অ্যান্ড কিউট’ জিভা। আইপিএল হোক কিংবা বিশ্বকাপ, বাবার সমর্থনে মায়ের পাশে গ্যালারিতে সবসময় হাজির ‘পাপা কি পরী’। এহেন জিভার সঙ্গে সম্প্রতি ধোনির স্যুইমিং সেশনের ছবি ভাইরাল ইন্টারনেটে।

আন্তর্জাতিক কেরিয়ার একাধিক প্রশ্নের মুখে ঘুরপাক খেলেও ছবিতে ধোনিকে দেখে তা বোঝার উপায় নেই। মেয়ের সঙ্গে নিশ্চিন্তে স্যুইমিং সেশনে ধোনি যেন একইরকম ‘কুল’। টেরিটোরিয়াল আর্মির হয়ে দেশসেবা করতে চেয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন নিজেকে। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তাঁকে না রেখে নির্বাচকরা ইঙ্গিত দিয়েছেন আগামী বছর টি-২০ বিশ্বকাপে নির্বাচকদের প্রাথমিক তালকায় ব্রাত্য মাহি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে না থাকা নিয়ে নাকি মুখও খুলেছেন ধোনি।

সূত্রের খবর, ২০২০ বিশ্বকাপের দিকে নজর রেখে নির্বাচকদের সময় নিয়ে দল তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রাক্তন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক। সেই দলে নিজে ব্রাত্য থাকলেও নির্বাচকদের ধোনি জানিয়েছেন যখন তিনি মনে করবেন ভারতীয় দলের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত হাতে, তখন নিশ্চিতভাবে কেরিয়ারে যবনিকা টানবেন। নির্বাচকরাও নাকি স্বীকার করে নিয়েছেন উইকেটের পিছনে দস্তানা হাতে ভারতীয় দলে রিজার্ভ এখনও তেমন শক্তিশালী নয়।