ভোপাল: বৃহস্পতিবার থেকে নিখোঁজ ছিল শিশুটি৷ পরিবার সূত্রে খবর বাড়ির বাইরেই খেলা করছিল তিন বছরের এই শিশুকন্যা৷ তারপর থেকেই হদিশ মিলছিল না তার৷ পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে শিশুর পরিবার৷ ঘটনাটি ঘটে মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুরে।

পরে রবিবার বুরহানপুরের ওই গ্রাম থেকে এক কিলোমিটার দূরে শিশুর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ পুলিশের চিফ সুপারিন্টেন্ডেন্ট অজয় কুমার জানান, ওই শিশু প্রথমে ধর্ষণ করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান৷ তারপর তাকে গলা টিপে খুন করা হয়৷

তিন জন চিকিৎসক শিশুর শারীরিক পরীক্ষা করেই এই তথ্য দিয়েছেন বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ তাই মনে করা হচ্ছে শিশুকে খুন করার আগে যৌন নির্যাতন করা হয়েছিল৷ শিশুটির দেহ যখন উদ্ধার করা হয়, তখন সেটি বিকৃত হয়ে গিয়েছিল৷ পরে ময়না তদন্ত করে একাধিক তথ্য উদ্ধার করা হয়েছে৷ ঠিক কি কারণে মৃত্যু তা ফরেন্সিক পরীক্ষার পরেই বোঝা যাবে বলে মনে করছে পুলিশ৷ এই সংক্রান্ত ল্যাব রিপোর্টও প্রকাশ করা হবে বলে জানানো হয়েছে৷

অভিযুক্তদের খুব তাড়াতাড়ি গ্রেফতার করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ৷ দোষীদের খোঁজে চলছে জোরদার তল্লাশি৷

তবে এই ঘটনা নিয়ে রাজনৈতিক চাপান উতোর শুরু হয়েছে৷ জেলা কংগ্রেস কমিটির প্রধান অজয় রঘুবংশী জানান, গোটা ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়৷ পুলিশ সাধারণ মানুষকে আরও নিরাপত্তা দিক৷ পুলিশ আরও সক্রিয় হোক বলে দাবি তাঁর৷ তবে প্রশাসনের কড়া সমালোচনা করেছেন অজয়৷ তিনি বলেন রাজ্যের বিজেপি সরকার রীতিমতো উদাসীন৷ মেয়েদের নিরাপত্তা রাজ্যে সুরক্ষিত নয়৷ দ্রুত এই ঘটনার বিচার চেয়েছে রাজ্য কংগ্রেস৷

তবে ঘটনার নিন্দা করেছে ক্ষমতাসীন বিজেপিও৷ তবে তাদের দাবি এই ঘটনার সঙ্গে যুক্তরা কড়া শাস্তি পাবে৷

গত মাসেই রাজস্থানের ঝালাওয়ারে এক সাত বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়৷ নিজের বাড়ির ২০০ মিটারের মধ্যে তার মৃত দেহ পাওয়া যায়৷ একই ঘটনা ঘটে উত্তরপ্রদেশেও৷ ঘোসি এলাকায় এক ১১ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণের অপরাধে এক মাদ্রাসা শিক্ষক ও তার পাঁচ সঙ্গীকে গ্রেফতার করা হয়৷