মালদহ: মামাদের হাত ধরেই রাজনীতিতে পা রেখেছিলেন মৌসম বেনজির নূর। দক্ষিণ মালদহের ভোটার মৌসম কংগ্রেসে থাকাকালীন মামার সঙ্গে ভোট দিতে যেতেন। কোতয়ালি ভবনের কণিষ্ঠ কন্যা সম্প্রতি কংগ্রেস ছেড়ে পা রেখেছেন তৃণমূলে। দল বদলের পর প্রথম ভোটে একাই ভোট দিতে এলেন মৌসম।

উত্তর মালদা থেকে তৃণমূলের হয়ে নির্বাচন লড়ছেন মৌসম। বাংলার বেশ কিছুটা রাজনীতিতে বেশ কিছুটা সময় কাটিয়ে নিজে চলতে শিখেছেন তিনি। মামার হাত ছেড়ে জোড়াফুলে এসেছেন। তাই ডালু মামা ও ঈষা দাদাকে ছাড়ায় মঙ্গলবার একাই ভোটদানের জন্য উপস্থিত হন নিজের বুথে।২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী জয়ী হয়েছিলেন৷ তার নিকটতম বিজেপি প্রার্থী বিষ্ণুপদ রায়কে ১ লক্ষ ৬৪ হাজার ১১১ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছিলেন৷এবারেও এই কেন্দ্রে কংগ্রেস থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আবু হাসেম খান চৌধুরী। বিজেপি থেকে ভোটে দাঁড়িয়েছন শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী। এই লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন।
এর আগের ভোটগুলিতে এই কেন্দ্রে মামার জয় নিশ্চত করতে চেয়ই ভোট দিয়েছেন মৌসম। কিন্তু এবারে গল্পটা বদলেছে অনেকটা। মৌসম নিজে তৃণমূলে গেলেও মামা আবু হাসেম খান চৌধুরী কংগ্রেসের হয়েই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাই দক্ষিণ মালদহতে দল নাকি পরিবার কাকে বেছে নেবেন মৌসম সে নিয়ে প্রশ্ন থাকছেই।