মুম্বই:  প্রত্যেকদিন বদলাচ্ছে প্রযুক্তি। প্রথমে ৩জি, এরপর ৪জি। থেমে থাকলে চলবে না। প্রত্যেকদিন প্রযুক্তির উপর ভর করে এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব। হাতে থাকা স্মার্টফোনটি পুরানো হলে চলবে! না চলবে না। আর তাই গোটা বিশ্ব এখন তাকিয়ে ৫জি’র দিকে। সেই মতো লন্ডন এবং ইউরোপের বাজারে এবার লঞ্চ হয়ে গেল motorola motog 5g স্মার্টফোন।

জানা গিয়েছে যা দামের দিক থেকে যথেষ্ট সস্তা। এই মুহূর্তে এমনিতেই গোটা বিশ্ব করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত। তার মধ্যে motorola র তরফ থেকে লঞ্চ করা হল এই ফোন। জানা গিয়েছে এই ফোনের দাম রাখা হয়েছে ৩৪৯ ইউরো। ভারতীয় মুদ্রায় যা ২৯, ০০০ টাকার কাছাকাছি।

এর আগেও motorolaর তরফে বেশ কয়েকটি গ্যাজেট লঞ্চ করা হয়েছিল। সেগুলি যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছিল। সংস্থা মনে করছে, তাঁদের আরও অত্যাধুনিক স্মার্টফোনটি মানুষের নজর কাড়বে। ৫জি পরিষেবার স্বাদ গ্রাহকদের দিতেই এই ফোন আনা হয়েছে ওই দুই দেশে। এখন ৪ জিবি+৬৪ ভ্যারিয়েন্টে এই ফোনের দাম রাখা হয়েছে ৩৪৯ ইউরো বা ভারতীয় মুদ্রায় ২৯০০০ টাকা। এবং ৬ জিবি র‍্যাম+১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্তের দাম রাখা হয়েছে ৩৯৯ ইউরো বা ৩৩, ৭৩০ টাকা ভারতীয় মুদ্রায়।

এই ফোনে রয়েছে ৬.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে qualcomm snapdragon ৭৬৫ ৫জি প্রসেসর। রয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ। যা ১ টিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। যদিও সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে moto 5g plus ৪জি এবং ৫জি দুই নেটওয়ার্কের জন্যই বানানো হয়েছে। যার ফলে দুই নেটওয়ার্ক ব্যবহারকারী মানুষ এই ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। সঙ্গে রয়েছে ২০ ডবলু ফাস্ট চার্জ সুবিধা। এও জনান হয়েছে একবার চার্জ দিলে টানা দুইদিন ব্যবহার করা যাবে এই ফোন। এই ফোনে রয়েছে android 10 এর সুবিধা। সঙ্গে রয়েছে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর। এতে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা। ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা এছাড়াও সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সর।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ