মুম্বই: এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন প্রয়াত গায়ক-সঙ্গীত পরিচালক ওয়াজিদ খানের মা। সোমবার প্রয়াত হয়েছেন ওয়াজিদ। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, কিডনিতে ইনফেকশন ছিল ওয়াজিদের। কোভিড ১৯-এও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। হিন্দুস্থান টাইমস-এর প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে মৃত্যু হয় তাঁর। হাসপাতালে ছেলের সঙ্গে ছিলেন ওয়াজিদের মা-ও।

এবিপি নিউজ সূত্রে খবর, ওয়াজিদের আগেই তাঁর মা রাজিনা করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে ওয়াজিদও করোনায় আক্রান্ত হন, যিনি কিডনি ও থ্রোট ইনফেকশনে ভুগছিলেন। সেই প্রতিবেদনটি থেকেই জানা যাচ্ছে, ওয়াজিদ খানের মা এখন অনেকটাই ভালো আছেন। অবস্থারও উন্নতি হয়েছে অনেকটাই। ছেলের জন্য সুরানা শেঠিয়া হাসপাতালে ছিলেন তিনি। সেই হাসপাতালেই নাকি অন্য এক রোগীর থেকে সংক্রমিত হন রাজিনা। তার পরে ওয়াজিদের শরীরেও কোভিড ১৯-এর অস্তিত্ব মেলে।

ওয়াজিদের ভাই সাজিদ খান জানাচ্ছেন, ওয়াজিদের কার্ডিয়ার অ্যারেস্ট হয়। তিনিই নিশ্চিত করেন, কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁর ভাই। ভারসোভা সেমেট্রিতে সমাধিস্থ করা হয় ওয়াজিদকে। তাঁর শেষকৃত্যে উপস্থিত ছিলেন পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা।

সংবাদমাধ্যম পিটিআই-এর কাছে তাঁর এক পরিজন জানিয়েছেন, বেলা ১টার সময়ে ওয়াজিদকে সমাধিস্থ করা হয়। লকডাউনের জন্য শেষকৃত্যে উপস্থিত ছিলেন ২০ জন। পুলিশি নিরাপত্তা ও ব্যারিকেডের ব্যবস্থাও ছিল।

বলিউডে ওয়াজিদের মৃত্যুতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সলমন খানের খুব কাছের ছিলেন ওয়াজিদ। বহু ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছেন। এছাড়াও ক্যাটরিনা কাইফ, অক্ষয় কুমার,অমিতাভ বচ্চন শোক প্রকাশ করেছেন তাঁর মৃত্যুতে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প